free hit counter
তামিলনাড়ুতে রথযাত্রায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ১১ জনের প্রাণহানি
আন্তর্জাতিক

তামিলনাড়ুতে রথযাত্রায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ১১ জনের প্রাণহানি

ভারতের তামিলনাড়ুতে রথের শোভাযাত্রায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে দুই শিশু রয়েছে। এছাড়াও আহত হয়েছেন আরও ১৫ জন। বুধবার (২৭ এপ্রিল) ভোরে তামিলনাড়ুর তাঞ্জাভুর জেলার কালিমেদু গ্রামে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।

. . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . .

পুলিশ জানিয়েছে, ভোরে কালিমেদু গ্রামের আপ্পার মাদাম মন্দিরের রথের শোভাযাত্রা বের হয়। এসময় রথের গাড়িটি দুর্ঘটনায় পড়ে সম্পূর্ণ পুড়ে যায়।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, রথের গাড়িটি একটি মোড়ে ঘুরতে গিয়ে কিছুটা বাধার সম্মুখীন হয়। বাধা পেয়ে গাড়িটি উল্টে যেতে থাকে। উল্টে যাওয়ার সময় রথটি উপরের থাকা উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন বৈদ্যুতিক লাইনের সংস্পর্শে আসে এবং আগুনে পুড়ে যায়। এসময় রথের ওপর দাঁড়িয়ে থাকা লোকজন বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ছিটকে পড়েন। এতে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। আহতদের নিকটবর্তী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছ।

একটি ভিডিওতে দেখা যায়, বৈদ্যুতিক লাইনের সংস্পর্শে আসামাত্রই রথের গাড়িটি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে যায়।

তিরুচিরাপল্লির সেন্ট্রাল জোনের আইজিপি ভি বালাকৃষ্ণান জানিয়েছেন, এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে এবং পুলিশ ঘটনার তদন্ত করছে।

পুলিশের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এনডিটিভিকে বলেন, দুর্ঘটনা এড়াতে সাধারণত মন্দিরের গাড়ি চলাচলের রাস্তায় বিদ্যুৎসংযোগ বন্ধ থাকে। তবে এই রথের গাড়িটি তেমন উঁচুও ছিল না, আবার ওই সময় বিদ্যুৎসংযোগও বন্ধ ছিল না। ধারণা করা হচ্ছে গাড়িটির কাঠোমোয় পরিবর্তন এনে উঁচু করা হয়েছিল, এ কারণেই হয়তো বিদ্যুতের তার স্পর্শ করে।

এ দুর্ঘটনায় হতাহতদের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জানিয়েছেন তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এম কে স্ট্যালিন। নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে পাঁচ লাখ রুপি করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। এছাড়া আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিতের নির্দেশও দিয়েছেন তিনি।