free hit counter
বিনোদন

কেন নিখোঁজ হলো তরুণীরা?

একই ইউনিভার্সিটি থেকে পর পর তিনজন মেয়ে নিখোঁজ হয়েছে। কেউ একজন টার্গেট করছে তরুণীদের। মঞ্জুর ধারণা, তার পছন্দের মানুষ লাবণীও হতে পারে অপহরণের শিকার। কিন্তু শুধু ধারণার ওপর ভর করে মঞ্জু কী করে বাঁচাতে পারবে লাবণীকে?

এমন এক ঘটনা নিয়ে নির্মিত হয়েছে ‘শুক্লপক্ষ’। আগামী ১১ আগস্ট রাত ৮টায় চরকিতে মুক্তি পেতে যাচ্ছে ভিকি জাহেদ পরিচলিত চরকি অরিজিনাল এই সিনেমা।

‘শুক্লপক্ষ’-এর মূল চরিত্রগুলোর মধ্যে অন্যতম একজন খাইরুল বাসার। তিনি বলেন, ‘আমি নিজেও শুক্লপক্ষ দেখার জন্য উদগ্রীব হয়ে আছি। হিংসা, প্রেম, অসহায়ত্ব, ক্ষমতা বা বর্বরতার এক দারুণ দ্বান্দ্বিক উপস্থাপন আছে এই গল্পে। আমার ধারণা, দর্শকরা গল্পের প্রতি পৃষ্ঠায় বিস্মিত হবেন। দর্শক টুইস্টের ঘোরপ্যাঁচে জড়িয়ে যাওয়ার অপেক্ষা করুক। আমি আন্তরিকভাবে আশা করছি, তারা হতাশ হবেন না।’

সুনেরাহ বিনতে কামালের প্রথম ওয়েবফিল্ম ‘শুক্লপক্ষ’। কাজের নানা অভিজ্ঞতা নিয়ে তিনি বলেন, ‘অডিয়েন্স হিসেবে যখন শুক্লপক্ষর স্ক্রিপ্ট পড়েছি তখনই কাজ করার আগ্রহ জন্মেছিল। ভিকি জাহেদের থ্রিলার মানেই তো অন্যরকম কিছু। উনার কাজ আমার বরাবর ভালো লাগে। সেই সাথে আমার কো-আর্টিস্ট যারা ছিলেন তারা সকলেই ক্যারেক্টারগুলোর সাথে জাস্টিস করেছেন।’

সুনেরাহ বিনতে কামাল। ছবি: চরকি শুটিংয়ে কি ধরনের চ্যালেঞ্জ ছিল জানতে চাইলে সুনেরাহ বলেন, ‘সিনেমাতে আমাকে অনেকগুলো লুকে দেখা যাবে। যেটা আমার জন্য খুব চ্যালেঞ্জিং ছিল। সেই সাথে আমরা একদিন জঙ্গলে শ্যুট করেছিলাম। সেখানে খুবই ভয়াবহ অবস্থার মধ্যে ছিলাম। আমার সারা শরীরে পোকার আক্রমণে পুরো নাজেহাল অবস্থা ছিল। সবকিছু অনেক কষ্টে সামলে নিয়ে কাজটি করেছি। শুধু এটুক বলতে পারি, দর্শকরা ট্রেইলার দেখে যা ধারণা করছেন তা মুহূর্তেই পাল্টে যাবে, এক কথায় কাজটি সবার কাছে ভালো লাগবে।’

জিয়াউল রোশানেরও এটা প্রথম ওয়েবফিল্ম। সেই সাথে চরকিতেও তার এটা প্রথম কাজ। তিনি বলেন, ‘আমার করা প্রথম ওয়েবফিল্ম যেটা মুক্তি পেতে যাচ্ছে চরকিতে। ভিকির সাথে এটা আমার দ্বিতীয় কাজ। তার সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতা অন্যরকমের। দর্শকরা ভিকির কাজ দেখার জন্য অপেক্ষা করে। সেই সাথে ফিল্মে আমার চরিত্রটা ফুটিয়ে তুলতে তিনি অনেক হেল্প করেছেন। সবাই নিজ নিজ জায়গা থেকে দুর্দান্ত কাজ করেছেন। সেটে আমরা সবাই খুব আনন্দ নিয়ে কাজটা করেছি। লোকেশন, গল্প, চরিত্র, পরিচালক-অভিনয় শিল্পীরা সব মিলিয়ে কাজটা দর্শক উপভোগ করবে। এখন শুধু মুক্তির অপেক্ষা।’

জিয়াউল রোশান ও সুনেরাহ। ছবি: চরকি পরিচালক ভিকি জাহেদও বেশ অপেক্ষায় আছেন তার দ্বিতীয় ওয়েবফিল্ম ‘শুক্লপক্ষ’ নিয়ে। কাজের অভিজ্ঞতা নিয়ে বলেন, ‘আমার অন্যান্য কাজগুলা থেকে শুক্লপক্ষ বেশ ভিন্ন কাজ হয়েছে। তবে জনরাটা থ্রিলারই রেখেছি। ফিল্মের কাস্টিং যারা আছেন তাদের প্রায় অনেকের সাথে আমার প্রথম কাজ। নতুন ও তরুণ টিমের সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতাটাও বেশ ইন্টারেস্টিং। শুক্লপক্ষর শেষটা দর্শককে খুব ভালোভাবে চমকে দিবে এই বিশ্বাস আমার আছে। অডিয়েন্সের সাথে আমি সব সময় ক্যাট এন্ড মাউস গেম খেলতে পছন্দ করি। কারণ এই গল্পের শেষটা আগে থেকে ধারণা করা খুব কঠিন।’

এই ওয়েবফিল্মে রয়েছে তিনটি গান। এর মধ্যে রয়েছে  ইমরান-কনা ও সদ্য খান-অবন্তী সিঁথির দ্বৈত দুটি গান। আর অজয় রায়ের একটি গান।

শুক্লপক্ষ-এ অন্যান্য চরিত্রে দেখা যাবে ফারুক আহমেদ, শরীফ সিরাজ, আব্দুল্লাহ সেন্টু প্রমুখ।

Source link