Image default
বাংলাদেশ

৭ ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি মুন্সীগঞ্জের আগুন, আহত ৭

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলায় টিকে গ্রুপের মালিকানাধীন সুপার বোর্ড কারখানায় লাগা আগুন সাড়ে সাত ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিট। এরই মধ্যে আগুন নেভাতে গিয়ে এক আনসার সদস্যসহ সাত জন আহত হয়েছেন। আহত অপর ছয় জন কারখানার শ্রমিক। তাদের গজারিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার (২৪ মার্চ) রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত আগুন জ্বলছিল।

এর আগে দুপুর ১টার দিকে উপজেলার হোসেন্দী ইউনিয়নের জামালদি এলাকার ওই কারখানায় অগ্নিকাণ্ড ঘটে। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন ফায়ার সার্ভিসের ঢাকা জোনের উপপরিচালক মোহাম্মদ সালেহ উদ্দিন।

তিনি বলেন, ‌‘আগুন কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে। ফলে এখান থেকে ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই। তবে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি। নিয়ন্ত্রণে একটি আধুনিক ফায়ার ফাইটিং রোবটসহ ১২টি ইউনিট কাজ করছে।’

শ্রমিকরা জানিয়েছেন, দুপুর ১টার দিকে কারখানার পাটের গোডাউনে আগুন দেখতে পান শ্রমিকরা। প্রথমে  আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন তারা। কিন্তু নিয়ন্ত্রণে আনতে না পেরে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন। পরে নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে ফায়ার সার্ভিস। এরই মধ্যে আগুন পুরো কারখানায় ছড়িয়ে যায়। এ অবস্থায় নিয়ন্ত্রণের কাজে যোগ দেয় ফায়ার সার্ভিসের ১২টি ইউনিট। এখনও নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেনি তারা।

গজারিয়া ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ রিফাত মল্লিক বলেন, ‘অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে প্রথমে গজারিয়া ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের দুটি ইউনিট নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। পরে নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকা থেকে আরও ১০ ইউনিট নিয়ন্ত্রণের কাজে যোগ দেয়। ভেতরে দাহ্য পদার্থ থাকায় নিয়ন্ত্রণে বেগ পেতে হচ্ছে। শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি, কারখানার ভেতরে প্রচুর পরিমাণে পাটখড়ির মজুত ছিল। তবে কীভাবে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে, তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর তদন্ত করে বলা যাবে।’

সুপার বোর্ড কারখানার পরিচালক মো. সাইফুল আতাহার তাসলিম বলেন, ‘আগুন কীভাবে লেগেছে, তা নিশ্চিত করে বলতে পারছি না। পাশাপাশি স্থানে থাকা আমাদের দুটি কারখানায় আগুন লেগেছে। দুটি কারখানায় বোর্ড তৈরির কাঠ মজুত ছিল। কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এখন বলতে পারছি না। আগুন নেভাতে গিয়ে মাহিম, শরিফুল ইসলাম ও মো. হিরনসহ কারখানার ছয় শ্রমিক আহত হয়েছেন।’

আগুন নেভাতে গিয়ে এক আনসার সদস্যসহ সাত জন আহত হয়েছেন

গজারিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কোহিনুর আক্তার বলেন, ‘আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা কাজ করছেন। এখন কিছুটা সহনীয় পর্যায়ে এসেছে। কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে শুনেছি।’

এদিকে, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মাসুদুর রহমানকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জেলা প্রশাসন। আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মাসুদুর রহমান বলেন, ‘তদন্ত কমিটিকে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। কীভাবে আগুন লেগেছে, তা জানার চেষ্টা করছি আমরা।’

আরও পড়ুন: মুন্সীগঞ্জে বোর্ড ফ্যাক্টরিতে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৬ ইউনিট

Source link

Related posts

পাঁচ ভাইকে চাপা দেওয়া পিকআপ চালক ৩ দিনের রিমান্ডে

News Desk

চট্টগ্রামে ২৪ ঘণ্টায় আরও ৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫৮৯

News Desk

১০ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট, হেঁটে পার হচ্ছেন যাত্রীরা

News Desk

Leave a Comment