free hit counter
বাংলাদেশ

মাথাভাঙ্গা নদীতে রাতভর মাছ ধরার হিড়িক

মাথাভাঙ্গা নদীতে মাছ ভেসে ওঠার খবর ছড়াতে থাকে সোমবার সন্ধ্যার পর থেকে। ভেসে ওঠা মাছ দেখতে নদীর দুই তীরে ভিড় জমায় উৎসুক জনতা। মাছ ধরতে নদীতে নেমে পড়েন নারী-পুরুষ, শিশু-কিশোরসহ সকল বয়সী মানুষ। হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় মাছ! রাতভর জমতে থাকে মানুষের ভিড়। তবে কি কারণে মাছ ভেসে উঠছে, সে প্রশ্নে বিভিন্ন উত্তর মিলেছে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে। কেউ বলছেন বিষক্রিয়ার কথা, আবার কেউ বলছেন অক্সিজেন সংকট। তবে এমন ঘটনা এর আগে ঘটেনি বলে দাবি সকলের।

চুয়াডাঙ্গার বুক চিরে বয়ে যাওয়া মাথাভাঙ্গা নদীর মুন্সীগঞ্জ ও দামুড়হুদা অংশে মাছ ভেসে উঠার এ ঘটনা ঘটে। মৃত ও জীবিত মাছ পানির উপরে উঠতে থাকায় মাছ ধরার হিড়িক পড়ে যায়। অবাক হয় অনেকে! এসময় দেশীয় প্রজাতির বিভিন্ন মাছ ধরা পড়ে মশারি, জাল ও গামছায়। মানুষজন দলবেঁধে নামে মাছ ধরতে।

নদীপাড়ের লোকজন বলেছেন, সারাজীবন নদীর পাড়ে বাস করছি। পানির মাছ এভাবে ভেসে উঠতে দেখিনি। এই প্রথম এমন ঘটনার সাক্ষী হলাম। কি কারণে এমন হয়েছে বুঝতে পারছি না।

তবে কি কারণে মাছ ভেসে উঠছে এমন প্রশ্নে অনেকেই বলেছেন, বিষক্রিয়ার কারণে এমন হতে পারে। আবার পাট জাগ দেওয়ার জন্যও এমন হতে পারে। এছাড়া অক্সিজেন সংকটে মাছ উপরে ভেসে ওঠে। আবার প্রাকৃতিক কারণেও এমনটা ঘটতে পারে। মাথাভাঙ্গা নদীতে রাতভর মাছ ধরার হিড়িক

এ ব্যাপারে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শামীম ভূঁইয়া জানান, এটা কোনও সাধারণ ঘটনা নয়। মাছ না ধরা কিংবা না খাওয়াই ভালো। চুয়াডাঙ্গা সদর, দামুড়হুদা, আলমডাঙ্গায় এই অস্বাভাবিক ঘটনা দেখা যাচ্ছে। এই ঘটনা তদন্তের জন্য সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে কথা বলতে জেলা মৎস কর্মকর্তাকে মোবাইল ফোনে বারবার কল দেওয়া হলেও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

Source link