Image default
বাংলাদেশ

বিএনপি-জামায়াতের কথা দেশের মানুষ শুনবে না: কাজী নাবিল

যশোর-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী কাজী নাবিল আহমেদ বলেছেন, ‘বিএনপি-জামায়াত নির্বাচনি ট্রেন ফেল করেছে। তারা দেশের উন্নয়নের সঙ্গে নেই, দেশের মানুষের সঙ্গে নেই, দেশের অগ্রগতির সঙ্গে নেই। সে কারণে দেশের মানুষ তাদের কথা শুনবে না।’

বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) বিকালে যশোর সদরের নরেন্দ্রপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে রূপদিয়া বাজারে আয়োজিত নির্বাচনি পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সারা দেশে বিভিন্ন মেগা প্রকল্পের উন্নয়ন কাজের বিবরণ প্রকাশ করে এমপি কাজী নাবিল বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। বিশ্ব বাংলাদেশের অভূতপূর্ব এই উন্নয়ন দেখে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করে। তিনি যেভাবে আমাদের সামাজিক, সাংস্কৃতিক, অবকাঠামোগত এবং নারীর উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সম্পন্ন করেছেন, বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন, সেটি প্রশংসার দাবি রাখে।’

তিনি বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশে যেমন নন্দিত, তেমনি সারাবিশ্বেও সমাদৃত। তিনি যখনই বাইরের দেশে যান, যেখানেই বক্তৃতা করেন, বিশ্ব নেতারা তার বক্তব্য গুরুত্ব সহকারে শোনেন।’

যশোর-৩ (সদর) আসনে নৌকার প্রার্থী কাজী নাবিল আহমেদ বিএনপি-জামাতকে পাকিস্তানের প্রেতাত্মা উল্লেখ করে বলেন, ‘তাদের শাসনামলে সারা দেশে বোমা হামলা হয়েছে, গ্রেনেড হামলা হয়েছে, জঙ্গিদের উত্থান হয়েছে, বাংলা ভাইয়ের জন্ম হয়েছে। তারা দেশকে আবারও পাকিস্তান বানাতে চায়।’

তিনি সরকারের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের স্বপ্নের পদ্মা সেতু দিয়েছেন। এই সেতুর কারণে যশোরসহ দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থার আমূল পরিবর্তন হতে যাচ্ছে। এই যশোরকে তিনি প্রথম ডিজিটাল জেলা হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি আমাদের একটি বিশ্ববিদ্যালয় দিয়েছেন, একটি মেডিক্যাল কলেজ দিয়েছেন, একটি সফটওয়্যার আইটি পার্ক দিয়েছেন, আমাদের ভৈরব ও কপোতাক্ষ নদ খনন করে দিয়েছেন।’

তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমাদের সবচেয়ে বড় লক্ষ্য আগামী ৭ জানুয়ারি নির্বাচনে নৌকা মার্কাকে বিজয়ী করে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আবারও দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া। সে কারণে এই সময়ে অন্য কোনও প্রার্থীর কথা শোনা যাবে না। আমাদের এখন একটিই মার্কা, সেটি হচ্ছে নৌকা মার্কা। আমাদের ক্ষুদ্র স্বার্থ ত্যাগ করে, ছোটখাটো অনৈক্য ভুলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আবারও দেশের প্রধানমন্ত্রী করতে হবে।’

নির্বাচনি পথসভায় সভাপতিত্ব করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কাশেম বিশ্বাস।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন– জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা একেএম খয়রাত হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সম্পাদক এসএম আফজাল হোসেন, জেলা যুবলীগের সভাপতি, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরী, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক আতিকুর রহমান বাবু, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লাইজু জামান, যুব মহিলা লীগের সভাপতি মঞ্জুন্নাহার নাজনীন সোনালী, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বিপুল, যুবলীগের সহ-সভাপতি সৈয়দ মেহেদী হাসান, নরেন্দ্রপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রাজু আহমেদ, সাবেক চেয়ারম্যান মোদাচ্ছের আলী, গৌতম বোস, সদর যুবলীগের আহ্বায়ক অশোক বোস, ফসিয়ার রহমান, শাহিন আলম প্রমুখ।

Source link

Related posts

২৪ ঘণ্টায় সিলেটে শতাধিক করোনা রোগী শনাক্ত

News Desk

সাজেকে গিয়ে সড়ক-বারান্দায়-গাড়িতে রাত কেটেছে পর্যটকদের

News Desk

রাজধানীতে উবারে যুক্ত হলো সিএনজিচালিত অটোরিকশা

News Desk

Leave a Comment