free hit counter
বরিশালে একদিনে আরও ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৭৬৬
বাংলাদেশ

বরিশালে একদিনে আরও ১৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৭৬৬

 

বরিশাল বিভাগে একদিনে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে করোনায় চারজন ও উপসর্গ নিয়ে ১১ জন মারা গেছেন। একইসময়ে নতুন করে ৭৬৬ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪১ দশমিক ৯৫ শতাংশ। রোববার (২৫ জুলাই) সকালে বরিশাল বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনা-সংক্রান্ত সর্বশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালের পরিচালক ডা. সাইফুল ইসলাম জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ১৫ জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে করোনায় চারজন ও উপসর্গ নিয়ে ১১ জন চিকিৎসাধীন ছিলেন।

করোনায় মৃতদের মধ্যে পিরোজপুরে দুজন, পটুয়াখালীতে একজন ও ঝালকাঠীতে একজন রয়েছেন। এদিকে রোববার সকাল ৮টা পর্যন্ত হাসপাতালের ৩০০ শয্যার করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩৩০ জন। এদের মধ্যে করোনা আক্রান্ত ১৩৬ জন।

তিনি আরও জানান, মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে ২৪ ঘণ্টায় ১৫৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৯৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়ছে। শনাক্তের হার ৬২ দশমিক ৩৩ শতাংশ। স্বাস্থ্য অধিদফতরের বরিশালে বিভাগীয় পরচিালক ডা. বাসুদেব কুমার দাশ জানান, বিভাগের ছয় জেলায় ১ হাজার ৮২৬টি নমুনা পরীক্ষায় ৭৬৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৪১ দশমিক ৯৫ শতাংশ।

বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণের হার সবচেয়ে বেশি বরিশাল জেলায়। এ জেলায় ৫৩৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ২৭৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৫১ দশমিক ১২ শতাংশ। ভোলায় ২১৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে ১০২ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।
শনাক্তের হার ৪৭ শতাংশ।

এদিকে পটুয়াখালীতে ২৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০৬ জনের করো শনাক্ত হয়েছে। এ জেলায় শনাক্তের হার ৪৫ দশমিক ১১ শতাংশ। বরগুনা জেলায় ৩০০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১১৯ জনের করো শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৯ দশমিক ৬৭ শতাংশ।

এছাড়া পিরোজপুরে ১৯০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ৫ শতাংশ। ঝালকাঠীতে ৩৫০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০৭ জনের করো শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ৫৭ শতাংশ।

Related posts

ভারত সীমান্তে কড়াকড়ি চায় জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি

News Desk

ফাইজারের টিকা আসছে আজ রাতে

News Desk

২৪ ঘণ্টায় আরও ৩০৪ জনের করোনা শনাক্ত

News Desk
Bednet steunen 2023