Image default
বাংলাদেশ

নিয়োগ নীতিমালায় গঠিত কমিটির সঙ্গে ডিনদের বৈঠক স্থগিত কেন?

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা প্রণয়নের জন্য গঠিত কমিটির সঙ্গে ডিন ও ইনস্টিটিউটের পরিচালকদের মিটিং স্থগিত করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে মিটিং অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও এদিন সকালে অনিবার্য কারণ উল্লেখ করে রেজিস্ট্রার দফতর থেকে ফোন করে মিটিং স্থগিতের বিষয়টি জানানো হয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আব্দুস সালাম বলেন, গত কয়েকদিনের ঘটনাকে কেন্দ্র আমাদের প্রশাসনিক মিটিং ছিল। তাই এই সভা স্থগিত করা হয়েছে।

মিটিং স্থগিতের বিষয় নিয়ে আওয়ামী লীগ ও বিএনপিপন্থী কয়েকজন ডিনের সঙ্গে কথা হয়। তবে ডিনরা নাম প্রকাশ করতে রাজি হননি। উভয় পক্ষের ডিনরা বলছেন, মিটিং কী কারণে স্থগিত করা হয়েছে সেটি তারা জানেন না। তবে চিঠি পাওয়ার পর তারা মিটিংয়ে যাবেন না বলে রেজিস্ট্রারকে জানিয়েছিলেন। কারণ তাদের আমন্ত্রণ করে ডাকা হয়েছে। যা সম্মানজনক বলে মনে হয়নি তাদের।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ২০ অক্টোবর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০৭তম সিন্ডিকেট সভায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা প্রণয়নে ১০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়। এতে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান উল ইসলামকে সভাপতি ও রেজিস্ট্রার আব্দুস সালামকে সদস্য সচিব করা হয়। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে কমিটির চতুর্থ সভা শহীদ নজরুল ইসলাম প্রশাসন ভবনে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। যেখানে বিভিন্ন অনুষদের ডিন ও ইনস্টিটিউটের পরিচালকদের আমন্ত্রণ জানানো হয়।

কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ফজলুল হক বলেন, আমরা এক একেকজন ডিন এক একটা অনুষদের প্রতিনিধিত্ব করি। ফ্যাকাল্টির কোনও বিষয়ে মতামত দিতে গেলে এর অধীনে থাকা বিভাগগুলোর মতামত নিয়ে আমাদের কথা বলতে হয়। আমরা আগে থেকে কিছুই জানি না। আমন্ত্রণ দিয়ে ডাকা হলো আমাদের। আমরা সেখানে গেলে পরবর্তী সময়ে তারা বলবে, এই সিদ্ধান্তের সময় ডিন ও পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন।

তিনি আরও বলেন, রেজিস্ট্রার দফতর থেকে চিঠি দিয়ে আমন্ত্রণ করে অনুষদের ডিন ও ইনস্টিটিউটের পরিচালকদের ডাকা হয়েছে। যেটাকে আমরা সম্মানজনক বলে মনে করিনি। এজন্য রেজিস্ট্রারকে জানিয়ে দিয়েছিলাম যে, আমরা এই মিটিংয়ে যাচ্ছি না। 

আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক আব্দুল হান্নান বলেন, আমরা বলেছি ডিনদের সঙ্গে আলোচনা করতে হলে ডিন কমিটি আছে, সেখানে করেন। কিন্তু একটি নীতিমালা তৈরি করে তারা নিয়ে আসবে। আর আমাদের আমন্ত্রণ জানিয়ে পাস করে ফেলবে। বিষয়টা কেমন হলো? এজন্য ডিনরা মিটিংয়ে যাবো না বলে জানিয়ে দিয়েছিলাম।

সার্বিক বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ও শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালা প্রণয়নে গঠিত কমিটির সদস্য সচিব অধ্যাপক আব্দুস সালাম বলেন,  ডিনরা আমাকে বলেছেন, যেহেতু এটি শিক্ষক নিয়োগ নীতিমালার বিষয়। তারা শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলে প্রশাসনের সঙ্গে মিটিং করবেন। তাছাড়া সিন্ডিকেট যে কমিটি করেছে, সেটি আলাদাভাবে সিন্ডিকেটে যাক। যাইহোক আমরা এটি প্রক্রিয়া করে ডিনদের কাছে মতামত চাইবো।

Source link

Related posts

‘১৫ ঘণ্টা অপেক্ষার পরও ফেরিতে উঠতে পারিনি’

News Desk

ড. কামালকে একহাত নিলেন ওবায়দুল কাদের

News Desk

কুতুবদিয়ায় পুকুরে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু

News Desk

Leave a Comment