Image default
বাংলাদেশ

আবারও লাইনচ্যুত নকশিকাঁথা মেইল ট্রেনের বগি

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ঘাট-খুলনা রুটের খুলনাগামী নকশিকাঁথা মেইল ট্রেনের একটি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। শনিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুর পৌনে ১টার দিকে গোয়ালন্দ পৌরসভার শ্মশান ঘাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গোয়ালন্দ ঘাট স্টেশনের (দৌলতদিয়া) সঙ্গে রাজবাড়ীর ট্রেন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।

এদিকে, দুর্ঘটনাকবলিত ট্রেনটি ইঞ্জিনসহ চারটি বগি নিয়ে রাজবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনে এসে অবস্থান করছে। ঘটনাস্থলে রয়েছে ওই ট্রেনের পেছনে থাকা একটি মালবাহী বগি। উদ্ধার কার্যক্রম শেষ হলে ট্রেনটি রাজবাড়ী স্টেশন থেকে খুলনার উদ্দেশে ছেড়ে যাবে।

ঘটনার পরেই রিলিফ ট্রেন গিয়ে লাইনচ্যুত ট্রেনের বগি উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে।

রাজবাড়ী রেলওয়ের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মো. শফিকুর রহমান স্বপন জানান, খুলনা থেকে ছেড়ে আসা নকশিকাঁথা মেইল ট্রেনটি দৌলতদিয়া ঘাটে যাত্রী নামানোর পর গোয়ালন্দ পৌর শ্মশান ঘাট এলাকায় এলে পেছনে থাকা মালবাহী বগিটি লাইনচ্যুত হয়ে যায়। ট্রেনটি উদ্ধারে কাজ চলছে।

গোয়ালন্দ ঘাট রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার আ. জলিল বলেন, ‘দুপুর পৌনে ১টার দিকে খুলনাগামী মেইল এক্সপ্রেস ট্রেনটির পেছনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়। ট্রেনটির বগি উদ্ধারে মেইল ট্রেন এসে কাজ শুরু করেছে। গোয়ালন্দ ঘাট থেকে দৌলতদিয়া ঘাট পর্যন্ত এ রুটে ট্রেনের লাইন খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। আমরা এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি।’

স্থানীয়রা জানান, শ্মশান ঘাট এলাকায় দুপুরে নকশিকাঁথা ট্রেনটি বিকট শব্দে লাইনচ্যুত হয়। আশপাশের লোকজন দ্রুত এসে দেখতে পান রেললাইন থেকে ট্রেনটির দুটি চাকা নিচে পড়ে গেছে। তবে এতে কোনও যাত্রী বা আশপাশে থাকা বাড়িঘর ও মানুষের ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। তবে তারা আতঙ্কিত হয়েছেন। তারা বলেন, ‘গত মাস আগেও দৌলতদিয়া ঘাটের ফকিরপাড়া এলাকায় এ ট্রেনটির দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়। আমরা এ রুটের ট্রেনের লাইনটি নতুন ও নিরাপদ চাই।’

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ১৮ আগস্ট দুপুরে খুলনাগামী মেইল এক্সপ্রেস ট্রেনটির দুটি বগি দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় লাইনচ্যুত হয়ে যায়। ১১ ঘণ্টা পর ট্রেনটির বগি উদ্ধার করে এ রুট সচল করা হয়।

Source link

Related posts

‘মুভমেন্ট পাস’ লাগবে না যাদের

News Desk

খালের পানিতে ভেসে উঠলো প্রাইভেটকার, এলাকায় চাঞ্চল্য

News Desk

ময়মনসিংহ মেডিকেলে প্রাণ গেল ২৫ জনের

News Desk

Leave a Comment