free hit counter
রাজধানী ঢাকা
বাংলাদেশ

আগের চেয়ে বেশি সুবিধা পাবেন প্লট মালিকেরা

ঢাকা শহরের চারপাশের এলাকায় আবাসিক ভবন নির্মাণের ক্ষেত্রে আগের চেয়ে বেশি সুবিধা পাবেন প্লট মালিকেরা। গ্রামীণ বসতি বিবেচনায় এসব এলাকার বড় একটি অংশে আগে দোতলার বেশি ভবন নির্মাণের অনুমতি মিলত না। এখন চার থেকে পাঁচতলা পর্যন্ত আবাসিক ভবন নির্মাণ করা যাবে। নতুন পাস হওয়া ঢাকা মহানগরের বিশদ অঞ্চল পরিকল্পনায় (ড্যাপ) ভূমি ব্যবহার পরিবর্তনের মাধ্যমে এ সুবিধা দেওয়া হয়েছে।

ভবন নির্মাণে আগের চেয়ে বেশি সুবিধা পাওয়া যাবে এমন এলাকাগুলোর মধ্যে আছে কেরানীগঞ্জ, সাভার, গাজীপুর, কালীগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জ। ২০১০ সালে পাস হওয়া ড্যাপের এই পাঁচ এলাকার ১৮২ বর্গকিলোমিটার গ্রামীণ বসতি হিসেবে চিহ্নিত করা ছিল। এসব এলাকায় ভবন নির্মাণে ছাড়পত্রের আবেদন করলে কেউ দোতলার বেশি অনুমোদন পেতেন না। কিন্তু গত ২৩ আগস্ট নতুন পাস হওয়া ড্যাপে গ্রামীণ বসতি হিসেবে ভূমির শ্রেণি বিভাগ রাখা হয়নি। এগুলো মূলত আবাসিক হিসেবে দেখানো হয়েছে।

আগের চেয়ে বেশি সুবিধা পাবেন প্লট মালিকেরা

নাম প্রকাশ না করার শর্তে রাজউকের এক কর্মকর্তা বলেন, রাজউকের আওতাধীন এলাকার আয়তন ১ হাজার ৫২৮ বর্গকিলোমিটার। কিন্তু সব এলাকায় নগরায়ণের হার সমান নয়। ঢাকার আশপাশে অনেক এলাকা আছে, যেখানে এখনো কিছু গ্রামীণ পরিবেশ রয়েছে। এ বৈশিষ্ট্য ধরে রাখার লক্ষ্যে ২০১০ সালের ড্যাপে এই এলাকাগুলো গ্রামীণ বসতি হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছিল। কিন্তু গত চার-পাঁচ বছরে এসব এলাকাতেও ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। নতুন নতুন ভবন তৈরি করছেন ভবন মালিকেরা, ওইসব এলাকায় আবাসনের চাহিদাও বেড়েছে। এমন বাস্তবতা বিবেচনায় গ্রামীণ বসতি শ্রেণিটি এবারের ড্যাপে বাদ দেওয়া হয়।

Related posts

নারায়ণগঞ্জে শামীম আইভীর বিরোধে শীতল হাওয়া

News Desk

রেকর্ডের দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ঢাকায়

News Desk

লঞ্চডুবি ঘটনায় কার্গো জাহাজের ৫ জন রিমান্ডে, ৯ জন কারাগারে

News Desk
Bednet steunen 2023