free hit counter
Xiaomi Mi Mix Fold এবার আসছে গ্লোবাল মার্কেটে, জানুন দাম ও ফিচার
প্রযুক্তি

Xiaomi Mi Mix Fold এবার আসছে গ্লোবাল মার্কেটে, জানুন দাম ও ফিচার

গত মাসে একগুচ্ছ নতুন স্মার্টফোনের সাথে Mi MIX Fold-কে ব্র্যান্ডের প্রথম ফোল্ডেবল স্মার্টফোন হিসেবে লঞ্চ করেছে Xiaomi। এরপর গত সপ্তাহে, সংস্থার ঘরোয়া বাজারে অনুষ্ঠিত প্রথম ফ্ল্যাশ সেলে এই ফোনটি ব্যাপকভাবে (১ মিনিটে ৩০-৪০ হাজার ইউনিট) বিক্রি হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে। তবে যেহেতু এই Mi MIX Fold এখনো অবধি কেবল দেশীয় মার্কেট অর্থাৎ চীনেই উপলব্ধ, ফলে ভারত বা অন্যান্য দেশের ক্রেতারা আগ্রহ থাকা সত্ত্বেও এটি পকেটস্থ করতে পারছেন না। সেক্ষেত্রে Xiaomi তার এই বিশেষ হ্যান্ডসেটটি গ্লোবাল মার্কেটে কবে উপলব্ধ হবে সে বিষয়ে মুখে কুলুপ আঁটলেও, সম্প্রতি এটির প্রাপ্যতা সম্পর্কিত চমকপ্রদ তথ্য সামনে এসেছে। জনপ্রিয় টিপস্টার মুকুল শর্মা একটি টুইট পোস্টে দাবি করেছেন যে খুব শীঘ্রই Mi MIX Fold বিশ্বব্যাপী লঞ্চ হতে পারে।

কী বিশেষত্ব এই Mi MIX Fold ফোনের?

শাওমি এমআই মিক্স ফোল্ড-এ একটি ৮.০১ ইঞ্চির AMOLED স্ক্রিন আছে যা QHD+ রেজোলিউশন, ৬০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং ৪:৩ আসপেক্ট রেশিও অফার করে। আবার এর বাইরের দিকের ৬.৫২ ইঞ্চি আকারের ডিসপ্লেতে পাঞ্চ-হোল কাটিং, ৯০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট এবং QHD+ (৮৪০x২৫২০ পিক্সেল) রেজোলিউশনের সুবিধা আছে। হার্ডওয়্যার বা সফ্টওয়্যারের কথা বললে, এই ফোনটি স্ন্যাপড্রাগন ৮৮৮ চিপসেটের সাহায্যে চলে এবং এতে LPDDR5 র‌্যাম ও UFS 3.1 স্টোরেজ ফিচার রয়েছে। ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক MIUI 12 ওএস-এ চলে।

Xiaomi Mi Mix Fold এবার আসছে গ্লোবাল মার্কেটে, জানুন দাম ও ফিচার

ক্যামেরার ক্ষেত্রে, এই ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ রয়েছে, যার প্রাইমারি সেন্সর হিসেবে ১০৮ মেগাপিক্সেলের Samsung ISOCELL HM2 লেন্স বর্তমান। অন্যদিকে মডিউলের বাকি দুটিতে থাকবে ৮ মেগাপিক্সেলের টেলিম্যাক্রো লেন্স এবং ১৩ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স। যেখানে ভিডিও কলিং বা সেলফি ক্যাপচারের জন্য এতে ২০ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরার দেখা যাবে। ফোনটির ব্যাটারি পারফরম্যান্সও ইউজারকে কোনোভাবেই নিরাশ করবে না, কারণ এতে ৫,০২০ এমএএইচের ব্যাটারি ক্যাপাসিটি এবং ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি রয়েছে।

Mi MIX Fold-এর দাম:

বলে রাখি, Xiaomi-র এই বিশেষ ফোনটি আইফোনের মতই ব্যয়বহুল। আগ্রহীদের Mi MIX Fold কিনতে গেলে ১২ জিবি + ২৫৬ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের জন্য ৯,৯৯৯ ইউয়ান (প্রায় ১,১১,৭৪৭ টাকা) এবং ১২ জিবি + ৫১২ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের জন্য ১০,৯৯৯ ইউয়ান (প্রায় ১,২২,৯৯০ টাকা) ব্যয় করতে হবে। এছাড়া ফোনটির Kevlar Texture যুক্ত ১৬ জিবি + ৫১২ জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টটি পাওয়া যাবে ১২,৯৯৯ ইউয়ান (প্রাস ১,৪৫,২০০ টাকা)-এর বিনিময়ে।

Related posts

স্যাটেলাইট ব্রডব্যান্ড ২০২৬ সালের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠবে

News Desk

নতুন প্রগ্রেসিভ ওয়েব অ্যাপ ফিচার আসছে ক্রোমে

News Desk

এশিয়ায় হুয়াওয়ের নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেম

News Desk