free hit counter
প্রযুক্তি

যেসব বিষয়ে খেয়াল রাখলে হ্যাং করবে না স্মার্টফোন

কাজ করতে করতে হঠাৎ ফোন হ্যাং, জরুরি কাজের সময় এরকম ঘটনা ঘটলে ভীষণ রাগ হয়। রাগে ফোনটি ভেঙে ফেলতে ইচ্ছে হয়, তাই না? একটা অ্যাপ খুলতেও বেশি সময় লাগে। আবার হয়ত হঠাৎ অ্যাপ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয়ে যদি আপনি নজর রাখেন, তাহলে দেখবেন আর ফোন হ্যাং করবে না।

১। ব়্যামের দিকে খেয়াল রাখুন- ব়্যাম মেমোরি কম হলেই সাধারণত স্মার্টফোন হ্যাং করে। তাই ফোন কেনার আগে দেখে নিন ব়্যাম বেশি কি না। আর যদি আপনার বর্তমান মোবাইলটির ব়্যাম কম হয়, তাহলে ভিডিও কিংবা গেম ডাউনলোড না করাই বুদ্ধিমানের কাজ। একই সঙ্গে ব্যাকগ্রাউন্ডে যে অ্যাপগুলি চলতে থাকে, তা বন্ধ করে দিন। তাহলে অনেক দ্রুত চলবে আপনার ফোন।

২। টাস্ক ম্যানেজার- আপনার অজান্তেই ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকে একাধিক অ্যাপ। যাতে মোবাইল হ্যাং হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। এক্ষেত্রে টাস্ক ম্যানেজারে গিয়ে সেই অ্যাপগুলি বন্ধ করে দিন।

 

৩। লাইভ ওয়ালপেপার- থ্রি-ডি ওয়ালপেপার দারুণ ভালবাসেন? স্ক্রিনে আলো জ্বললেই জীবন্ত হয়ে ওঠে ওয়ালপেপারটি? এই ধরনের ওয়ালপেপার মোবাইল থেকে সরিয়ে ফেলুন। এক্ষেত্রে স্টোরেজও যেমন বেশি নেয়, তেমনই ব্যাটারিও দ্রুত কমে যায়।

৪। ইন্টারনাল মেমোরি- ফোন মেমোরি অতিরিক্ত ব্যবহার করলেই স্মার্টফোন হ্যাং হয়। তাই এক্সটারনাল স্টোরেজের অপশন থাকলে সেটি ব্যবহার করুন। মাঝে মধ্যে সেটিংস থেকে ইন্টারনাট মেমোরির ক্য়াশ পরিষ্কার করে ফেলুন।

৫। মাল্টিটাস্কিং- ব়্যাম কম থাকলে একসঙ্গে একাধিক অ্যাপ ব্যবহার না করাই ভাল। একই সঙ্গে মোবাইলে আলাদা করে ডাউনলোড করা অ্যান্টি ভাইরাস ব্যবহারের প্রয়োজন নেই।

তথ্য সূত্র : https://www.bd-pratidin.com/

Bednet steunen 2023