free hit counter
খেলা

৩০৬ রান করেও কিউই ব্যাটিংয়ে ধরাশায়ী ভারত

অকল্যান্ডে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৭ উইকেটে ৩০৬ রানের সংগ্রহ গড়েছিল ভারত। জবাবে টম ল্যাথাম ও কেন উইলিয়ামসনের অবিচ্ছিন্ন রেকর্ড চতুর্থ উইকেট জুটিতে সেই রানও টপকে গেছে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড। প্রথম ম্যাচে কিউইরা জিতেছে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে। তাও আবার ১৭ বল হাতে রেখে।

টস জিতে শুরুতে ভারতকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় নিউজিল্যান্ড। দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান ও শুভমান গিলের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে ওপেনিংয়ে যোগ করে ১২৪ রান। গিল ৬৫ বলে ৫০ রানে বিদায় নিলে ভাঙে জুটি। তার বিদায়ে শিখর ধাওয়ানও ফিরে গেছেন পর পর। ফেরার আগে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়কের ইনিংসটি ছিল ৭২ রানে সাজানো। দ্রুত ঋষভ পান্ত (১৫), সূর্যকুমার যাদবও (৪) ফিরে গেলে ইনিংস সামলেছেন শ্রেয়াস আইয়ার। ৭৬ বলে ৮০ রানের ইনিংস খেলে স্কোরবোর্ড তিনশোতে নিয়ে গেছেন তিনি। শেষ দিকে তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন স্যানজু স্যামসন ও ওয়াশিংটন সুন্দর। স্যামসন ৩৮ বলে ৩৬ রান করেছেন। তবে সুন্দর ১৬ বলে ৩ চার ও ৩ ছক্কায় উপহার দেন ৩৭* রানের টর্নেডো ইনিংস। তাতে স্কোরবোর্ডও দ্রুত সমৃদ্ধ হয়েছে।

টিম সাউদি ৭৩ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। ৫৯ রানে তিনটি নেন লকি ফার্গুসনও।

জবাবে ৮৮ রানের মধ্যে ফিন অ্যালেন (২২), ডেভন কনওয়ে (২৪) ও ড্যারিল মিচেলের (১১) উইকেট নেওয়া পর্যন্তই থেমে থাকে ভারত। তার পর তাদের ওপর চড়াও হয়ে অবিচ্ছিন্ন জুটিতে ৪৭.১ ওভারে ম্যাচটা জিতে নেন কেন উইলিয়ামসন ও টম ল্যাথাম। কিউই অধিনায়ক কেন ৬ রানের জন্য সেঞ্চুরি বঞ্চিত হয়েছেন। তার ৯৮ বলে করা ৯৪ রানের ইনিংসে ছিল ৭টি চার ও ১টি ছয়। টম ল্যাথ্যামই ছিলেন সবচেয়ে বেশি আগ্রাসী। ১০৪ বলে ১৯টি চার ও ৫ ছক্কা ১৪৫ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। ল্যাথাম-কেনের জুটিটি ছিল ২২১ রানের। যা সফল রান তাড়ায় চতুর্থ উইকেটে সেরা।

ভারতের হয়ে ৬৬ রানে দুটি উইকেট নেন উমরান মালিক।

Bednet steunen 2023