Image default
খেলা

শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়াকে বিদায় করে শেষ চারে ইংল্যান্ড

পাওয়ার প্লের পরের ওভারটায় ভালো বোলিং করেন মহীশ তিকসানা, মাত্র ৪ রানই দিয়েছেন। রানের গতি কমে গেছে বলেই কি না পরের ওভারে ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার ওপর চড়াও হতে যান বাটলার। ফলটা ভালো হয়নি, মিড উইকেট দিয়ে উড়িয়ে মারতে গিয়ে সীমানার কাছাকাছি জায়গায় ক্যাচ হয়ে ফেরেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক। এর আগে হেলসের সঙ্গে ওপেনিংয়ে ৭৫ রানের জুটি গড়েন। জুটিতে তাঁর অবদান ছিল ২৩ বলে ২৮ রান। ইনিংসটিতে তিনি ২টি চারের পাশাপাশি ১টি ছয় মেরেছেন।

হাসারাঙ্গা পরের ওভারে এসে তুলে নেন হেলসকেও। আউট হওয়ার আগে ৭ চার ও ১ ছয়ে ৩০ বলে ৪৭ রান করেন তিনি। অষ্টম থেকে পঞ্চদশ ওভারের মধ্যে ইংল্যান্ডকে একটা ঝাঁকুনিই দিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। এই সময়ে বাটলার, হেলসসহ ৫টি উইকেট তুলে নেন দলটির বোলাররা। এই ৫ উইকেট ইংল্যান্ড হারিয়েছে ৩৬ রানের মধ্যে। একটা সময় ইংল্যান্ডের জয়ের হিসাবটা ১৫ বলে ১৫ রানের মধ্যে নিয়ে আসে লঙ্কানরা।

এমন সময়েই আউট হয়ে ফেরেন বেন স্টোকসের সঙ্গে জুটি গড়া স্যাম কারেন। তবে এরপর আর কোনো উইকেট পড়তে না দিয়ে শেষ ওভারে গড়ানো ম্যাচে ইংল্যান্ডকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন স্টোকস ও ওকস। ম্যাচ শেষে স্টোকস ২টি চারে ৩৬ বলে ৪২ রান করে অপরাজিত ছিলেন। আর ওকস করেছেন ৩ বলে অপরাজিত ৪ রান। শ্রীলঙ্কার পক্ষে দুটি করে উইকেট নিয়েছেন কুমারা, হাসারাঙ্গা ও ধনাঞ্জয়া।

Related posts

49ers কিকার মিচ উইশনোস্কি জায়ান্টসের হোম ওপেনারে ফুটবলকে জলে ফেলেছেন

News Desk

বিশ্বকাপে শক্তিশালী ব্যাটসম্যান ম্যাকগার্ককে দেখতে চান মাইকেল ক্লার্ক

News Desk

এমএলবি-এর বিপর্যয়কর ইউনিফর্মগুলি অবশেষে পরিবর্তন পেয়েছে কারণ এমএলবিপিএ হৈচৈ পরে নাইকিকে দোষারোপ করেছে

News Desk

Leave a Comment