Image default
খেলা

শুরুতে পিছিয়ে পড়েও দুর্দান্ত জয়, নকআউটে বেলজিয়াম

বুধবার সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে জিতে প্রথম দল হিসেবে ইউরো কাপের নকআউট পর্বের টিকিট পেয়েছে ইতালি। একদিন পর দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ ষোলোতে পা রাখল ফিফা র‍্যাংকিংয়ের বর্তমান নাম্বার ওয়ান দল বেলজিয়াম। ডেনমার্কের মাটিতে খেলতে গিয়ে ২-১ গোলের দুর্দান্ত জয় নিয়ে ফিরেছে বেলজিয়ানরা। ম্যাচের শুরুতেই গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়েছিল তারা। পরে দ্বিতীয়ার্ধে দুই গোল করে জিতে নিয়েছে ম্যাচ।

যার সুবাদে প্রথমবারের মতো ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ তথা ইউরো কাপে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচ জিতল বেলজিয়াম। অন্যদিকে ২০০০ সালের ইউরোর পর প্রথমবারের মতো প্রথম দুই ম্যাচ হারল ডেনমার্ক। প্রথম ম্যাচে ফিনল্যান্ডের কাছে ০-১ গোলে হেরেছিল ড্যানিশরা। নিজেদের ঘরের মাঠে পার্কেন স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরুতেই বেলজিয়ানদের হতবাক করে দেয় ডেনমার্ক। ম্যাচের মাত্র ৯২ সেকেন্ডের মাথায় পিয়ের এমিল হইবিয়েরের এসিস্টে গোল করে বসেন ইউসুফ পুলসেন। ইউরোর ইতিহাসে দ্বিতীয় দ্রুততম গোলের রেকর্ড।

শুধু প্রথমে গোল করেই নয়, সারা ম্যাচজুড়ে একের পর এক আক্রমণে বেলজিয়ামের রক্ষণভাগকে স্বস্তিতে থাকতে দেয়নি ড্যানিশরা। পুরো ম্যাচে গোলের উদ্দেশ্যে অন্তত ২১টি শট নিয়েছে ডেনমার্ক। যার মধ্যে ৫টি ছিল লক্ষ্য বরাবর। কিন্তু প্রথমটি ছাড়া আর গোল পায়নি তারা। অন্যদিকে শুরুতে গোল হজমের পরেও ম্যাচের দশম মিনিটে ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেনের জন্য উদযাপনস্বরুপ খেলা বন্ধ রাখে বেলজিয়াম। পরে প্রথমার্ধে একের পর এক আক্রমণ করেও সমতা ফেরাতে পারেনি তারা। পিছিয়ে থেকেই যেতে হয় বিরতিতে।

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ড্যামিয়েন মার্টিনসের জায়গায় কেভিন ডি ব্রুইনেকে মাঠে নামান বেলজিয়ান কোচ রবার্তো মার্টিনেজ। আর তাতেই বদলে যায় তাদের ভাগ্য। ম্যাচে বেলজিয়ামের দুই গোলেই সরাসরি অবদান রাখেন ডি ব্রুইন। প্রথমে ৫৪ মিনিটের মাথায় দুর্দান্ত দলীয় আক্রমণে সমতাসূচক গোল করেন থরগান হ্যাজার্ড। কাউন্টার অ্যাটাকের শুরুটা করেছিলেন রোমেলু লুকাকু। তার বুদ্ধিদ্বীপ্ত পাস পেয়ে যান ডি ব্রুইন। সেই বল ধরে থরগানের উদ্দেশ্যে বাড়ান ডি ব্রুইন এবং মেলে প্রথম গোল।

পরে জয়সূচক গোলের জন্য অপেক্ষা করতে হয়েছে আরও ১৬ মিনিট। এবারও অসাধারণ এক দলীয় আক্রমণের সুফল পেয়েছে বেলজিয়াম। রোমেলু লুকাকু, তিয়েলমানস ও এডেন হ্যাজার্ডের পা ঘুরে বল পান ডি ব্রুইনে। বাম পাশ দিয়ে নিচু শটে পরাস্ত করেন ডেনমার্কের গোলরক্ষককে। বাকি সময়ে দুই দলই চেষ্টা চালিয়েছে গোলের। কিন্তু সফল হয়নি কেউই। ফলে ২-১ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে পেরেছে বেলজিয়াম। অন্যদিকে পরপর দুই ম্যাচ হারের হতাশায় নিমজ্জিত হয়েছে ডেনমার্ক। গ্রুপপর্বে বেলজিয়ামের পরবর্তী ম্যাচ আগামী ২১ জুন বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত ১টায়, প্রতিপক্ষ ফিনল্যান্ড। একইদিন একই সময়ে রাশিয়ার মুখোমুখি হবে ডেনমার্ক। সেদিনই হয়তো ঠিক হবে বি গ্রুপ থেকে আর কোন দল যাবে শেষ ষোলোতে।

Related posts

দীর্ঘদিনের ইএসপিএন অ্যাঙ্কর জন অ্যান্ডারসন ‘স্পোর্টস সেন্টার’ থেকে অবসর নিয়েছেন

News Desk

‘প্রতিকূল জনতার’ কারণে সাহসী ব্রায়ান স্নিটকার তার পরিবারকে ফিলাডেলফিয়ায় আনেননি

News Desk

লেকার্স নিউজলেটার: প্লে অফের পথ অন্ধকার, কিন্তু লেকার্স একটি বিরতি পেতে পারে

News Desk

Leave a Comment