free hit counter
খেলা

বোলারদের নৈপুণ্যে জয় পেলো শ্রীলঙ্কা

প্রথম ম্যাচে নামিবিয়ার কাছে হেরে অঘটনের শিকার হওয়ার পর নিজেদের টিকে থাকার লড়াইয়ে বোলিং নৈপুণ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ৭৯ রানে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। এই জয়ে বিশ্বকাপে টিকে থাকলো এশিয়া চ্যাম্পিয়নরা। ১৫৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ৭৩ রানেই গুটিয়ে যায় আরব আমিরাত। মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) জিলংয়ের কার্ডিনিয়া পার্কে টসে জিতে শ্রীলঙ্কাকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় আরব আমিরাত।

প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আরব আমিরাতের বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে খেলতে থাকে দুই উদ্বোধনী ব্যাটার পাথুম নিশাঙ্কা ও কুশল মেন্ডিস। তবে, দলীয় ৪২ রানে ছন্দ পতন হয় তাদের। ১৩ বলে ১৮ রান করে আরিয়ান লাকরার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফিরে যান। এরপর ক্রিজে আসা ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে নিয়ে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে ৫০ রান তুলেন পাথুম নিশাঙ্কা। দলীয় ৯২ রানে ভুল বোঝাবুঝিতে রান আউটে কাঁটা পড়েন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা।




 

এরপর ব্যাটিংয়ে আসেন ভানুকা রাজাপাকসে। তবে, হঠাৎ ছন্দ পতন হয় লঙ্কানদের। দলীয় ১১৭ রানের মাথায় তিন ব্যাটারকে হারায় শ্রীলঙ্কা। এই তিন ব্যাটারকেই সাজঘরে ফিরিয়ে হ্যাট্রিক করেন আরব আমিরাতের স্পিনার কার্ত্তিক মায়াপ্পান।



 এরপর দলীয় ১২০ রানে আউট হন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা। এতে বেশ চাপে পড়ে যায় লঙ্কানরা। তবে, একপাশের উইকেট আগলে রেখে নিজের অর্ধশতক তুলে নেন ওপেনার পাথুম নিশাঙ্কা। এরপর চামিকা করুণারত্নেকে সঙ্গে নিয়ে স্কোর বোডে আরও ৩০ রান যোগ করেন নিশাঙ্কা। ইনিংসের শেষ ওভারের তৃতীয় বলে দলীয় ১৫০ রানে ১১ বলে ৮ রান করে আউট হন চামিকা। এরপর পঞ্চম বলে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬০ বলে ৭৪ রান করে আউট হন পাথুম নিশাঙ্কা। 



 শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ১৫২ রান সংগ্রহ করে শ্রীলঙ্কা। আরব আমিরাতের পক্ষে কার্ত্তিক মায়াপ্পান নেন সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট। আর জাহুর খান নেন ২টি উইকেট।

১৫৩ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারে ১০ রান নিয়ে ভালো কিছুর আভাস দেন আরব আমিরাতের ওপেনার চিরাগ সুরি। তবে, সে আশায় গুড়ে বালি। মাত্র ২১ রানেই ৪ উইকেট হারায় আরব আমিরাত। একাই তিন ব্যাটারকে ফিরিয়ে আমিরাত ব্যাটিং ইনিংসে ধ্বস নামায় শ্রীলঙ্কার দুশমন্থ চামিরা।



এরপর স্কোর বোডে মাত্র ১৫ রান যোগ করতেই আরও দুই উইকেট হারায় আরব আমিরাত। দলীয় ৫০ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় আইসিসির সহযোগী দেশটি। এরপর আর মাত্র ২৩ রান তুলে ৭৩ রানে অলআউট হয় আরব আমিরাত। আমিরাতের মাত্র তিন জন ব্যাটার পৌঁছাতে পেরেছেন দুই অঙ্কের ঘরে। আফজাল খান  করেন সর্বোচ্চ ২১ বলে ১৯ রান। আর জুনাইদ সিদ্দিকি ১৬ বলে ১৮ ও চিরাগ সুরি করেন ১৪ বলে ১৯ রান। অন্যদিকে, লঙ্কানদের পক্ষে দুশমন্থ চামিরা ও ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা নেন ৩টি করে উইকেট। তবে, নিজের চতুর্থ ওভারের শেষ বলে করতে গিয়ে বল শেষ না করেই খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে মাঠ ছাড়েন দুশমন্থ চামিরা।    

Source link

Bednet steunen 2023