free hit counter
খেলা

‘বোমা’ ফাটিয়ে বিশ্বকাপে যাচ্ছেন রোনালদো

কাতারের মাটিতে বিশ্বকাপের আসর বসতে বাকি হাতে গোনা আর মাত্র ছয় দিন। তার আগেই গতকাল রাতেই শেষবারের মতো মাঠে নেমেছিলো ইউরোপীয়ান ফুটবলের দলগুলো। বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে গতকাল থেকেই বিরতিতে চলে গেছে ক্লাব ফুটবল। বিশ্বকাপ সামনে রেখে অংশগ্রহণকারী দেশ আর খেলোয়াড়দের এখন শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি নিতেই ব্যস্ত থাকার কথা। এর মধ্যেই বিশাল বড় এক বোমা ফাটালেন পর্তুগিজ কিংবদন্তি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।  

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকেই আজকের মহাতারকা রোনালদো হওয়ার শুরু। অ্যালেক্স ফার্গুসনের সেই ম্যানইউয়ের তারকা থেকে রিয়াল মাদ্রিদে গিয়ে নিজেকে মহাতারকা বানিয়ে ফেলা সিআর সেভেন মাঝের সময়টা জুভেন্টাসে কাঁটিয়ে আবারও ফিরেছিলেন নিজের ঘর ইউনাইটেডে। তবে এবারের ফেরাটা বা পুরোনো ঘরে বসবাস করাটা যে খুব সুখকর হচ্ছে না নিজের জন্য সেটি আগেই বেশ কয়েকবার প্রকাশ করেছেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী এই ফুটবলার।

নতুন করে রেড ডেভিলদের ডেরায় যোগ দেওয়ার পর গত মৌসুমটা ভালোই কাটিয়েছিলেন রোনালদো। তবে এই মৌসুমে এরিক টেন হাগ ম্যানইউয়ের নতুন কোচ হয়ে আসার পর থেকেই শুরু বিপত্তির। টেন হাগের ফুটবল দর্শনের সঙ্গে না মেলায় চলতি মৌসুমের বেশিরভাগ সময়ই পর্তুগিজ তারকাকে কাটাতে হয়েছে বেঞ্চে। এ নিয়ে রোনালদোর মধ্যে বেশ ক্ষোভও দেখা যায়।



এবার জনপ্রিয় ব্রিটিশ সাংবাদিক পিয়ার্স মরগানকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নিজের ক্ষোভ উগড়ে দিলেন রোনালদো। শুধু টেন হাগই নয়, রোনালদোর কথার বানে বিদ্ধ হয়েছেন সাবেক সতীর্থ ওয়েইন রুনি আর ম্যানইউয়ের কিছু ক্লাব কর্মকর্তাও। 

মরগানকে দেওয়া বিশেষ সাক্ষাৎকারে রোনালদো বলেন, ‘ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আমাকে জোরপূর্বক তাড়িয়ে দিতে চেয়েছিল। শুধু ম্যানেজার-ই নয়, ক্লাবের দায়িত্বে থাকা অন্যরাও একই চেষ্টা করেছিলো। আমি এখানে প্রতারণার শিকার হয়েছি।’

রোনালদো আরও বলেন, ‘কিছু মানুষ আমাকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে চায় না, এমনটাই আমার মনে হয়। শুধু এ বছরেই না, গত মৌসুমেও তারা আমাকে চাননি।’

টেন হাগের প্রতি নিজের ক্ষোভের কথা জানিয়ে কোনো রাখঢাক না রেখেই রোনালদো বলেন, ‘কোচের প্রতি আমার কোনো সম্মান নেই। বিষয়টা সহজ, কারণ সেও আমাকে কোনো সম্মান দেখায় না।’


টেন হাগের সঙ্গে সম্পর্কটা কোনভাবেই যেন ভালো যায়নি রোনালদোর। ছবি: সংগৃহীত

স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসন বিদায়ের পর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোনো উন্নতি হয়নি বলেও মন্তব্য করেছেন পর্তুগিজ তারকা।

টেন হাগ কোচ হয়ে আসার পর থেকে রোনালদো যেন ভুলেই গেছেন প্রথম একাদশে মাঠে নামাটা। ম্যাচের পর ম্যাচ বেঞ্চে বসে থাকতে থাকতে রোনালদোও এতটাই বিরক্ত হয়েছেন যে কিছুদিন আগে টটেনহ্যামের বিপক্ষে বদলি হিসেবে তাকে নামাতে চাইলে রোনালদো উল্টো ডাগআউট ছেড়ে উঠে বেরিয়ে যান মাঠ থেকেই। শাস্তি হিসেবে চেলসির বিপক্ষে পরের ম্যাচে রোনালদোকে স্কোয়াডে থেকেই বাদ দেন টেন হাগ।

সাবেক সতীর্থ ওয়েইন রুনিকে উদ্দেশ্য করেও বেশ কড়াভাবেই কথা বলেছেন রোনালদো। তিনি বলেন, ‘আমি জানি না, উনি (রুনি) কেন আমাকে এত তীব্রভাবে সমালোচনা করেন। সম্ভবত উনি খেলা ছেড়ে দিয়েছেন আর আমি এখনো শীর্ষ পর্যায়ে খেলে চলেছি এ জন্য। আমি বলতে চাই না যে আমি তার চেয়ে ভালো খেলোয়াড়, যেটা আসলে সত্যি…।’’ 

Source link

Bednet steunen 2023