free hit counter
ফাইনালের আগে করোনা আতঙ্কে কোহলিরা
খেলা

ফাইনালের আগে করোনা আতঙ্কে কোহলিরা

করোনার সংক্রমণে থমকে গেছে আইপিএল। আসন্ন বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালেও তেমন কিছুর পুনরাবৃত্তি ঠেকাতে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা করছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। এতদিন সফরকারী দল নির্দিষ্ট দেশে পৌঁছানোর পর জৈব বলয়ে ঢুকলেও করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এবার নিজ দেশেও জৈব বলয়ের ব্যবস্থা করছে ভারত।

করোনা সংক্রমণ রুখতে কোহলিদেরকে প্রথমে আট দিনের জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকতে হবে নিজ দেশেই। এরপর হবে তাদের ইংল্যান্ড যাত্রা। সেখানে বাধ্যতামূলক দশ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে তাদের। করোনা সংক্রমণের আইপিএল মাঝপথেই স্থগিত হয়ে যাওয়ায় এই ফাইনাল নিয়ে কোনও প্রকার ঝুঁকি নিতে চাইছে না ভারতীয় বোর্ড।

আগামী ১৮ জুন সাউদাম্পটনে ঐতিহাসিক সে ‘টেস্ট বিশ্বকাপ’ ফাইনালে কোহলিরা লড়বেন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। স্থানীয় সংবাদ সংস্থা এএনআইকে বোর্ডের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দেশের মাঠে ২৫ মে থেকে জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করতে হবে কোহলিদের। এর পরে ২ জুনের পরে ইংল্যান্ডে পা দিয়েই চলে যেতে হবে কোয়ারেন্টাইনে।

তবে দুই দফায় কোয়ারেন্টাইন পর্বকে ভেঙে দেওয়ার আরও একটা কারণ আছে। সেক্ষেত্রে ইংল্যান্ডে কোয়ারেন্টাইনে থাকাকালেই অনুশীলন শুরু করতে পারবে ভারত। ভারতীয় বোর্ড কর্তার কথা, ‘ইংল্যান্ডে নিভৃতবাসে থাকলেও অনুশীলন চলার কথা কোহলিদের। কারণ আমরা আগে থেকেই ওদেরকে আরেকটা বলয়ে রাখব। সেখান থেকে ওরা যাবেও বিশেষ বিমানে করে। সেক্ষেত্রে অনুশীলনে সমস্যা হওয়ার কথা না। এছাড়া তা ছাড়া নিয়মিত করোনা পরীক্ষা তো হবেই।

বিসিসিআই কর্তা সম্ভাব্য একটা দিনও জানালেন। তার ভাষ্য, ‘২৫ মে-র মধ্যেই সম্ভবত জৈব সুরক্ষা বলয়ে প্রবেশ করবে ক্রিকেটারেরা। এ সময়ে ক্রিকেটারদের বেশ কয়েক বার করোনা পরীক্ষা হবে। যাওয়ার জায়গাও নির্দিষ্ট করে দেওয়া হবে খেলোয়াড়দের। কোহলিরা এরপরই চলে যাবে ইংল্যান্ডে।’

বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে দলকে উদ্বুদ্ধ করতে সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলিও থাকতে পারেন সাউদাম্পটনে, জানাচ্ছে পিটিআই। তবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজটিতেই ভারতের সফর শেষ হচ্ছে না। এরপর স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ টেস্টের সিরিজ খেলবে ভারত, যার শেষটি হওয়ার কথা ১৪ সেপ্টেম্বর। প্রায় তিন মাস সময় দেশের বাইরে থাকার কারণে ক্রিকেটারদেরকে অনুমতি দেওয়া হচ্ছে পরিবার নিয়ে যাওয়ারও।

এই সফরের আগেই কোভিশিল্ডের করোনা প্রতিষেধক নেওয়ার কথা আছে কোহলিদের। তবে প্রথম দফা নেওয়ার পর দ্বিতীয় দফায় কীভাবে নেবেন কোহলিরা, তা নিয়ে আছে কিছুটা ধোঁয়াশা। তবে ভারতীয় বোর্ডের সেই কর্তা জানালেন, দ্বিতীয় দফা টিকার ব্যবস্থা করার জন্য ইংলিশ বোর্ডের সঙ্গে এ নিয়ে আলাপ চলছে। যদি ইসিবি এ নিয়ে ভারতকে সহায়তা না করে সেক্ষেত্রেও বিকল্প ব্যবস্থা রেখেছে বিসিসিআই। তখন দ্বিতীয় দফা টিকা ভারত থেকেই ইংল্যান্ডে নিয়ে যাওয়া হবে কোহলিদের জন্য।

Related posts

রামেকে করোনা ইউনিটে রেকর্ড ১৮ জনের মৃত্যু

News Desk

শাহরুখকে কাইরণ পোলার্ডের সঙ্গে তুলনা করলেন কুম্বলে

News Desk

ঢাকা বাইরে দেয়া হবে না ফাইজারের টিকা

News Desk