free hit counter
প্রথম ম্যাচ হারের ‘রেকর্ড’ ভাঙতে পারল না মুম্বই ইন্ডিয়ান্স
খেলা

প্রথম ম্যাচ হারের ‘রেকর্ড’ ভাঙতে পারল না মুম্বই ইন্ডিয়ান্স

নয় নয় করে ন’ বছর৷ আইপিএলে তাদের প্রথম ম্যাচে হারের ‘মিথ’ ভাঙতে পারল না মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ এর মধ্যে পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন হলেও প্রথম ম্যাচে হারের তেতো স্বাদ ভুলতে পারছে না রোহিত অ্যান্ড কোং৷ ২০১৩ সালে রিকি পন্টিংয়ের হাত ধরে যা শুরু হয়েছিল, ২০২১ রোহিত শর্মার হাতেও তা অপরিবর্তিত৷ আইপিএলের ইতিহাসে সফলতম ক্যাপ্টেন তিনি৷ আইপিএলের ইতিহাসে সর্বাধিক পাঁচটি ট্রফি দিয়েছেন মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে৷ কিন্তু প্রথম ম্যাচে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের হারের ‘মিথ’ এবারও ভাঙতে পারলেন না রোহিত৷

২০১৩ আইপিএল থেকে প্রথম ম্যাচে হারছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ রিকি পন্টিং থেকে রোহিত৷ এই ‘মিথ’ চলেই আসছে৷ এর মধ্যে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন করিয়েছেন রোহিত৷ কিন্তু প্রথম ম্যাচে হারের রেকর্ড বদলাতে পারেনি ‘হিটম্যান’৷ মরু শহরে গত আইপিএলেও এর ব্যতিক্রম হয়নি৷ প্রথম ম্যাচে টানা আটবার হার দিয়ে এবারের আইপিএল শুরু করেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ কিন্তু এবারও তার ব্যতিক্রম হল না৷

শুক্রবার চিপকে ২০২১ আইপিএলের প্রথম ম্যাচে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের কাছে ২ উইকেটে হারাল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ টস হেরে এদিন প্রথম ব্যাটিং করে স্কোরবোর্ডে ৯ উইকেটে ১৫৯ রান তুলেছিল গতবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বই৷ ম্যাচের শেষ বল পর্যন্ত লড়াই হলেও ভাগ্যে জয় লেখা ছিল না রোহিতদের৷ শেষ ওভারে এবি ডি’ভিলিয়ার্সকে রান-আউট করে আশা জাগলেও জয় অধরা মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের৷ শেষ বলে রান নিয়ে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্সকে জেতান ম্যাচের নায়ক হর্যল প্যাটেল৷

যিনি এর আগে বল হাতে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে ১৫৯ রানে বেঁধে রাখতে বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন৷ চার ওভারে মাত্র ২৭ রান দিয়ে ৫ উইকেট নেন হর্যল৷ এই পারফরম্যান্স যে কোনও বোলারের কাছে ঈর্যার কারণ৷ শেষ পাঁচ ওভারে ৬ উইকেটে ৩১ রান তোলে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ শেষ চার ওভারে মাত্র ২৫ রান৷ ২০১৬ সালের পর থেকে এটাই মুম্বইয়ের সবচেয়ে খারাপ শেষ চার ওভারের রান৷ দুরন্ত বোলিং হর্যলের৷ চার ওভারে মাত্র ২৭ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট নেন এই ডানহাতি পেসার৷ মুম্বইয়ের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৯ রান করেন ক্রিস লিন৷ এছাড়া সূর্যকুমার যাদব ৩১ এবং ইশান কিষান ২৮ রান করেন৷

রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা মন্দ হয়নি আরসিবি-র৷ বিরাট কোহলির সঙ্গে এদিন ইনিংস শুরু করেছিলেন ওয়াশিংটন সুন্দর৷ ৪.২ ওভারে ৩৬ রানে সুন্দরের উইকেট হারিয় আরসিবি৷ তারপর ক্যাপ্টেন কোহলি, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল এবং এবি ডি’ভিলিয়ার্স দলকে জেতান৷ কোহলি ২৯ বলে ৩৩, ম্যাক্সওয়েল ২৮ বলে ৩৯ এবং এবিডি ২৭ বলে ৪৮ রান করেন৷

রোহিত হলেন আইপিএলের ইতিহাসে একমাত্র অধিনায়ক, যিনি পাঁচটি ট্রফি জিতেছেন৷ শুধু তাই নয়, এবার তাঁর সামনে ট্রফি জয়ের হ্যাটট্রিকের হাতছানি৷ ২০১৯ ও ২০২০ আইপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে রোহিতের মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ প্রথম ম্যাচে হারাটা মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের কাছে ‘লাকি’ও৷ কারণ ন’ বছর আগে অর্থাৎ ২০১৩ আইপিএলে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স৷

২০১৩ আইপিএলে পন্টিংয়ের নেতৃত্ব অভিযান শুরু করেছিল মুম্বই৷ কিন্তু পরের দিকে পন্টিংয়ের থেকে নেতৃত্বের ব্যাটন তুলে দেওয়া হয়েছিল রোহিতের হাতে৷ সেবারও পন্টিংয়ের নেতৃত্বে প্রথম ম্যাচে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের কাছে ২ রানে হেরেছিল মুম্বই৷ টুর্নামেন্টের মাঝে দলের দায়িত্ব নিয়ে চ্যাম্পিয়ন করে রাতারাতি ‘হিরো’ বনে গিয়েছিলেন ‘আমচি মুম্বই’ রোহিত৷ তারপর থেকে আরও চারটি ট্রফি দিয়েছেন ‘হিটম্যান’৷

Related posts

অশ্বিনের পরিবারে করোনায় আক্রান্ত ১০

News Desk

মুস্তাফিজের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সাকারিয়া

News Desk

মুম্বাইতে রাত্রিকালীন কারফিউ, আইপিএল-এ পড়বে না প্রভাব

News Desk