Image default
খেলা

‘পেদ্রির মতো আর কেউ পারেনি’

টাইব্রেকার ভাগ্যে হেরে ইউরো কাপের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছে সর্বোচ্চ তিনবারের চ্যাম্পিয়ন স্পেন। দ্বিতীয় শিরোপার খোঁজে ফাইনালের টিকিট পেয়ে গেছে ইতালি। সেমিতে হারলেও, নিজ দলের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট স্পেনের কোচ লুইস এনরিকে।

বিশেষ করে ১৮ বছর বয়সী তরুণ মিডফিল্ডার পেদ্রি গনজালেজের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন এনরিকে। তার মতে, এবারের ইউরো কাপে যা করেছেন ১৮ বছরের পেদ্রি, তা আর কেউ করতে পারেনি। এমনকি স্পেনের কিংবদন্তি ফুটবলার আন্দ্রে ইনিয়েস্তাও নন।

পেদ্রির পাশাপাশি আরেক তরুণ খেলোয়াড় দানি ওলমোকেও প্রশংসায় ভাসিয়েছেন এনরিকে। ইতালির বিপক্ষে ম্যাচটিতে নির্ধারিত সময়ে ওলমোর এসিস্টেই স্পেনের সমতাসূচক গোলটি করেছিলেন আলভারো মোরাতা। পরে টাইব্রেকারে অবশ্য মিস করেন ওলমো।

তবে এতে কোচের কাছে ওলমোর পারফরম্যান্সের গুরুত্ব কমেনি একটুও। ম্যাচ শেষে এনরিকে বলেছেন, ‘আমার মতে ওলমো অসাধারণ একটি ম্যাচ খেলেছে। তবে পেদ্রি এ টুর্নামেন্টে যা করেছে, ১৮ বছর বয়সে, তা আর কেউ পারেনি। এমনকি আন্দ্রেস ইনিয়েস্তাও নয়। সত্যিই দুর্দান্ত।’

খেলোয়াড়ি জীবনে বার্সেলোনা ও স্পেনের হয় সবধরনের সাফল্য পেয়েছেন ইনিয়েস্তা। স্পেনের ২০০৮ সালের ইউরো, ২০১০ সালের বিশ্বকাপ ও ২০১২ সালের ইউরো জয়ী দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন দ্য ডন। সেই ইনিয়েস্তার চেয়েও তরুণ বয়সে পেদ্রিকে এগিয়ে রাখলেন এনরিকে।

ইতালির বিপক্ষে ম্যাচটিতে টাইব্রেকারের আগপর্যন্ত আধিপত্য বিস্তার করেই খেলেছে স্পেন। পুরো ম্যাচের প্রায় ৭০ ভাগ সময় বলের দখল ছিল তাদের নিয়ন্ত্রণে। এছাড়াও আক্রমণ ও লক্ষ্য বরাবর শট নেয়ার পরিসংখ্যানেও ইতালির চেয়ে পরিষ্কার ব্যবধানে এগিয়ে ছিল স্পেন।

তাই টাইব্রেকারে হেরে গেলেও, নিজ দলকে দশের মধ্যে ৯ নম্বর দিচ্ছেন এনরিকে, ‘আমি আমার দলকে দশের মধ্যে ৯ নম্বর দিচ্ছি। খেলাধুলায় আপনাকে হার-জিত শিখতেই হবে। আপনি পরাজয় থেকে আরও বেশি শিখতে পারেন। আমাদের অবশ্যই প্রতিপক্ষকে অভিনন্দন জানাতে হবে। যখন হারবেন, তখন আবার দাঁড়িয়ে চেষ্টা করতে হবে।’

 

Related posts

চলে যাচ্ছেন বায়ার্নের ইতিহাস গড়ার কারিগর ‘ফহ্যান্সি ফ্লিক’

News Desk

শ্রীলঙ্কার কাছে ২ উইকেটে হেরে বাংলাদেশের বিদায়

News Desk

অবশেষে ভাঙলো ম্যাথুস-চান্দিমাল জুটি

News Desk

Leave a Comment