Image default
খেলা

পিতৃহারা হলেন চেতন সাকারিয়া

আইপিএলে ডাক না পেলে হাসপাতালে বাবার করোনা চিকিৎসার জন্য রীতিমতো সংকটে পড়ে যেতেন তিনি। তাই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগকে দিনকয়েক আগে ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন রয়্যালসের প্রতিশ্রুতিমান বাঁ-হাতি পেসার চেতন সাকারিয়া। আইপিএল থেকে উপার্জিত অর্থেই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত বাবাকে সুস্থ করে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার সংকল্প করেছিলেন তিনি। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে হার মানলেন চেতন সাকারিয়ার বাবা কাঞ্জিভাই সাকারিয়া।

বছরের শুরুতেই ভাইকে হারানোর পর করোনায় বাবাকে হারিয়ে বিধ্বস্ত সৌরাষ্ট্রের ক্রিকেটার। রাজস্থান রয়্যালস ফ্র্যাঞ্চাইজির তরফ থেকে সাকারিয়ার বাবার মৃত্যুসংবাদ নিশ্চিত করা হয়েছে। তারা টুইটে লিখেছে, ‘আমাদের খবরটা জানাতে ভীষণ কষ্ট হচ্ছে যে কাঞ্জিভাই সাকারিয়া আজ সকালে কোভিডের সঙ্গে লড়াইয়ে হেরে গিয়েছেন। আমরা চেতনের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। কঠিন সময়ে যতোটা সম্ভব তাঁকে এবং তাঁর পরিবারের পাশে থাকার চেষ্টা করছি।’

উল্লেখ্য, ফেব্রুয়ারিতে আইপিএলে ডাক পাওয়ার আগে জানুয়ারিতে সৈয়দ মুস্তাক আলি টুর্নামেন্ট চলাকালীন ভাইকে হারিয়েছিলেন চেতন। তখন পরিবারে একমাত্র রোজগেরে ব্যক্তি বলতে ছিল তাঁর ভাই। কিন্তু টানাপোড়েনের সংসারে হতাশা গ্রাস করেছিল চেতনের ভাইকে। আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছিলেন তিনি। যদিও টুর্নামেন্ট নিয়ে ব্যস্ত চেতনের কাছে সেই ঘটনা বেশ কয়েকদিন চেপে রেখেছিলেন তাঁর মা। দিনকয়েক আগে এই ঘটনা সম্পর্কে অবগত হয়েছিলেন দেশের ক্রিকেট অনুরাগীরা। কিন্তু পরবর্তীতে চেতন আইপিএলে ডাক পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাঁদের পরিবারের আর্থিক সংকট দূর হচ্ছিল ধীরে-ধীরে। কিন্তু তখনই ফের ধাক্কা।

দুঃখের বিষয় ক্রিকেটার ছেলের সুখের সময় খুব বেশিদিন দেখে যেতে পারলেন না বাবা কাঞ্জিভরম সাকারিয়া। পেশায় টেম্পো চালক চেতনের বাবা দুর্ঘটনায় বহুদিন ধরেই শয্যাশায়ী। অসুস্থ পিতাকে খুব বেশি সময় সেবা করার সুযোগ পেলেন না চেতনও। অতিমারী কেড়ে নিল তরুণ ক্রিকেটারের বাবাকে। উল্লেখ্য, অভিষেক আইপিএলে বল হাতে শুরুটা মন্দ করেননি চেতন। স্থগিতের আগে সাত ম্যাচে ৭ উইকেট নিয়ে রয়্যালসের অন্যতম সফল বোলার ছিলেন তিনি। প্রথম ম্যাচে পঞ্জাব কিংসের বিরুদ্ধে শর্ট ফাইন-লেগে নিকোলাস পুরানের ক্যাচ শরীর শূন্যে ছুঁড়ে তালুবন্দি করে তাক লাগিয়েছিলেন চেতন।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ’য়ে মাত্র কয়েকদিনের ব্যবধানে জাতীয় দলের মহিলা ক্রিকেটার বেদা কৃষ্ণমূর্তি হারিয়েছেন মা এবং বোনকে। শনিবার একইদিনে প্রয়াত হয়েছেন ভারতীয় হকির দুই দিকপাল রবিন্দর পাল সিং এবং এমকে কৌশিক।

Related posts

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উইকেট হবে স্পিন সহায়ক

News Desk

কামিন্সের পর করোনা মোকাবিলায় ভারতকে অর্থসাহায্য ব্রেট লি’র

News Desk

ডজার্স বনাম শাবক মতভেদ, ভবিষ্যদ্বাণী: MLB বাছাই, শনিবারের জন্য সেরা বাজি

News Desk

Leave a Comment