Image default
খেলা

নামিবিয়ার কাছে হেরে ব্যাটসম্যানদের দুষলেন শানাকা

শ্রীলঙ্কার এশিয়া কাপ জয়ে বড় অবদান ছিল টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচে নামিবিয়ার বিপক্ষে পুরোপুরি ব্যর্থ তাদের শুরুর ব্যাটসম্যানরাই। বড় হারের পর লঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকা বললেন, পাওয়ার প্লের ব্যাটিংই মূলত ডুবিয়েছে তাদের।

অস্ট্রেলিয়া আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে রোববার ৫৫ রানে হারে শ্রীলঙ্কা। ১৬৪ রানের লক্ষ্য তাড়ায় এক ওভার বাকি থাকতে স্রেফ ১০৮ রানে অলআউট হয়ে যায় এশিয়ান চ্যাম্পিয়নরা।

রান তাড়ায় দ্বিতীয় ওভারেই কুসল মেন্ডিসকে হারায় শ্রীলঙ্কা। ডেভিড ভিসাকে পুল করতে গিয়ে ক্যাচ দেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। পরের ওভারে বেন শিকঙ্গোর পরপর দুই বলে ফিরে যান আরেক ওপেনার পাথুম নিসানকা ও চারে নামা দানুশকা গুনাথিলাকা।

২১ রানেই তারা হারায় ৩ উইকেট, পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে রান আসে মোটে ৩৮। পরের ওভারে ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার বিদায়ে সেটি হয়ে যায় ৪০/৪। সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি তারা।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে পাওয়ার প্লের ব্যাটিংকেই দায় দিলেন শানাকা। একই সঙ্গে প্রতিপক্ষকেও কৃতিত্ব দিতে ভুললেন না তিনি।

“পাওয়ার প্লেতে আমরা তিনটি উইকেট হারাতে পারি না, যা দেড়শর বেশি রান তাড়া করা খুব কঠিন করে তোলে। নামিবিয়ার খেলোয়াড়রা যেভাবে খেলেছে, তাদের কৃতিত্ব দিতে হবে।”

“এটা মোটেও কঠিন লক্ষ্য ছিল না। আমি আগেই বলেছি, পাওয়ার প্লেতে তিন উইকেট হারানোর পর ফিরে আসাটা খুব কঠিন। অতীতে আমরা ১৬০ রান তাড়া করেছি। এই ম্যাচে যা হয়েছে তা হলো, চমৎকার লাইন-লেংথে বল করেছে তারা।”

বল হাতেও প্রতিপক্ষকে বেঁধে রাখতে পারেনি লঙ্কানরা। পঞ্চদশ ওভারে নামিবিয়ার স্কোর ছিল ৬ উইকেটে ৯৩। এরপর সপ্তম উইকেটে স্রেফ ৩৩ বলে ৬৯ রানের বিস্ফোরক জুটি গড়েন ইয়ান ফ্রাইলিঙ্ক ও জেজে স্মিট। দ্রুত ওই জুটি ভাঙা গুরুত্বপূর্ণ ছিল বলে মনে করেন শানাকা।

“ষষ্ঠ উইকেট পতনের পর আমাদের পরের উইকেটটি নিতে হতো। আমার মনে হয়, আমাদের বোলাররা উইকেট নেওয়ার জন্য বোলিং করেনি। আমাদের এই দিকটি নিয়ে এখন ভাবতে হবে। বাউন্ডারি মারার জন্য আমরা অনেক বাজে বল দিয়েছি।”

Related posts

সর্বোচ্চ ‘সিরিজ সেরা’র তালিকায় ৩ নম্বরে সাকিব আল হাসান

News Desk

আইপিএলে শততম জয় নাইটদের, অভিনন্দন শাহরুখের

News Desk

শ্রীলঙ্কা মনে করে বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাস এখন তলানিতে

News Desk

Leave a Comment