free hit counter
খেলা

নতুন এফটিপিতে প্রায় ২০০ ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ

আগামী ২০২৩ থেকে ২০২৭ সালের নতুন এফটিপিতে বাংলাদেশের ম্যাচ সংখ্যা বাড়ছে। আসন্ন এই সূচিতে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে গিয়ে খেলার সুযোগও থাকছে। তবে সেটি এখনো নিশ্চিত হয়নি। আইসিসির নতুন ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রামে (এফটিপি) প্রায় দুইশো ম্যাচ খেলবে টাইগাররা।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত আইসিসির সভায় ভবিষ্যৎ সফর পরিকল্পনার খসড়া সূচি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এতে বড় দলগুলোর বিপক্ষে খেলার সুযোগ বাড়ছে বাংলাদেশের। ২০০৮ সালে সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়া সফর করেছিল টাইগাররা। সেবার তিনটি ওয়ানডে খেলে উভয় দল। এর আগে ২০০৩ সালের সফরে দুটি টেস্ট ও তিনটি ওয়ানডে খেলেছিল বাংলাদেশ। তাও মূল কোনো ভেন্যুতে নয়, ডারউইন ও কেয়ার্নস নামের দুই অখ্যাত শহরে অনুষ্ঠিত হয়েছিল ম্যাচগুলো।

এবার পরিবর্তন আসতে যাচ্ছে। নতুন এফটিপি অনুযায়ী, ২০২৬ সালে বাংলাদেশ সফরে আসবে অস্ট্রেলিয়া। এর পরের বছর সেই দেশে টেস্ট খেলতে যাবে টাইগাররা। তবে এখনো আলোচনা চলছে। আর ইংল্যান্ডের মাটিতেও খেলার সুযোগ থাকছে। এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস।



রবিবার (১৭ এপ্রিল) মিরপুরে গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘ইংল্যান্ডের সঙ্গে নিশ্চিত হয়নি, এখনো কথা চলছে। ইংল্যান্ডে গিয়ে একটা সিরিজ খেলার চেষ্টা করছি। আশা করছি ইসিবির কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া পাবো। অস্ট্রেলিয়ায় ২০২৭ সালে দু’টো টেস্ট খেলতে যাবে বাংলাদেশ, তবে এখনো নিশ্চিত হয়নি। ২০২৬ সালে ওরা আমাদের এখানে আসবে। অস্ট্রেলিয়া আছে, ইংল্যান্ড আছে, দক্ষিণ আফ্রিকা আছে, আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ তো আছেই। কিছু সিরিজ মোটামুটি নিশ্চিত হয়েছে। পরে আপনারা জানতে পারবেন।’

জালাল ইউনুসের ভাষ্য অনুযায়ী, নতুন সূচিতে বাংলাদেশ প্রায় দুইশো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলবে। এর মধ্যে ৪০+ টেস্ট, ৭০+ ওয়ানডে ও ৭৬+ টি-টোয়েন্টি রয়েছে। এর বাইরে বিভিন্ন ত্রিদেশীয় সিরিজ ও আইসিসি ইভেন্ট তো আছেই। সবমিলিয়ে বেশ ব্যস্ত সময় কাটবে টাইগারদের।

Source link