free hit counter
দর্শক ফেরানোর কথা ভাবনাতেও নেই বিসিবির
খেলা

দর্শক ফেরানোর কথা ভাবনাতেও নেই বিসিবির

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল ক্রিকেট। এরপর খেলা মাঠে ফিরেছে। বাংলাদেশ দল ঘরের মাঠে প্রথম আন্তর্জাতিক সিরিজ খেলে চলতি বছরের গোড়ার দিকে, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। সেই সিরিজে দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেয়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চলমান তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজও হচ্ছে দর্শক ছাড়া। বিসিবি বলছে, আপাতত দর্শক ফেরানোর কথা ভাবনাতেও নেই তাদের।

বোর্ডের মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস ঢাকা পোস্টকে বলেন, ‘মাঠে দর্শক ফেরানোর কোনো প্রশ্নই আসে না। এনিয়ে এখনই কোনো ভাবনা নেই আমাদের। দেশের বর্তমান যে পরিস্থিতি, এ জায়গায় দাঁড়িয়ে এমন চিন্তা আসে কোথা থেকে? যেভাবে খেলা চলছে, আপাতত সেভাবেই সবকিছু চলবে।

করোনা অস্তিত্ব জানান দিয়েছে বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা সিরিজেও। গত ২৩ মে প্রথম ওয়ানডের আগে শ্রীলঙ্কা দলের একাধিক ক্রিকেটারের শরীরে এই ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া যায়। যদিও পরবর্তী পরীক্ষায় একজন ছাড়া বাকি সবার ফলই নেগেটিভ আসে। এমন পরিস্থিতিতে কোনও অবস্থায় গ্যালারীতে দর্শক ফেরাবে না বলে সাফ জানিয়েছে বিসিবি। বোর্ডের এমন ভাবনাকে সমর্থন করছেন অনেকেই।

চ্যালেন আই অনলাইনের সিনিয়র ক্রীড়া সাংবাদিক সাজ্জাদ খান বলেন, ‘এখনো দর্শক ফেরানোর পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। খেলোয়াড়রাই কিন্তু ঝুঁকিতে আছেন। শ্রীলঙ্কা দলের কয়েকজন ক্রিকেটারের আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তারপরেও যে সিরিজটি হচ্ছে, এটি আমাদের জন্য স্বস্তির ব্যাপার। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ যখন শুরু হলো, তখন কিন্তু বেশ কয়েকজন সাংবাদিকও আক্রান্ত হয়েছেন, যদিও সেটি মাঠের বাইরে থেকে। ঝুঁকি কিন্তু এখনো কেটে যায়নি। যদি দ্বিতীয় ঢেউ আবার শুরু না হতো, তাহলে আমরা আবার দর্শক প্রত্যাশা করতে পারতাম।’

আপাতত দর্শক না ফেরানোর ভাবনায় সাজ্জাদ খান ব্যাখ্যা দেন, ‘দেখেন দর্শক ছাড়া আইপিএল হয়েও কিন্তু মাঝপথ স্থগিত করতে বাধ্য হলো। আমি মনে করি এখনো দর্শক ফেরানোর পরিস্থিতি তৈরি হয়নি। যেখানে খেলোয়াড়রাই এখনো নিরাপদ নয়, তারাই যেখানে জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থেকেও আক্রান্ত হচ্ছেন। গ্যালারিতে যদি দর্শক থাকে, তাহলে কিন্তু আপনি তাদেরকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারপবেন না। খেলার চলাকালীন যে উত্তেজনা, তার মধ্যে এটিকে নিয়ন্ত্রণ করা খুবই কঠিন হয়ে যাবে।’

বিসিবি মাঠে দর্শক না ফেরালেও কয়েকজন আমন্ত্রিত অতিথিকে খেলা দেখার সুযোগ দিচ্ছে। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমের পাড় সমর্থক রবিউল ইসলাম রবি। মুশফিকের অনুশীলনের সময় সাহায্য করেন তিনি। রবিকে মাঠে এসে গ্যালারীতে বসে খেলা দেখার সুযোগ করে দিয়েছেন মুশফিক।

বিশেষ পাসের মাধ্যমে প্রতি ম্যাচে বাঘের সাজে গ্যালারীতে বসে জাতীয় পতাকা উড়িয়ে দলকে সমর্থন দিচ্ছেন তিনি। তবে দর্শক বিহীন গ্যালারীতে দলের জন্য গলা খুলে চিৎকার করার উৎসাহটা ঠিকঠাক পাচ্ছেন না। রবি জানান, মাঠে দর্শক থাকলে দলকে সমর্থন করা সহজ হয়ে যায়। তবে দেশের স্বার্থে বিসিবির সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাচ্ছেন তিনি।

রবি বলেন, ‘আসলে দর্শক ছাড়া খেলা দেখলে মজাটা থাকে না। দর্শক থাকলে আনন্দ উল্লাস করে সাপোর্ট দেওয়া যায়, অনেক চাঙ্গা থাকা যায়। দেশের জন্য চুপ করে থাকা যায় না। দেশের যখন দুঃসময় থাকে তখন, মন থেকে সাপোর্ট চলে আসে।’

সঙ্গে যোগ করেন রবি, ‘এখন শ্রীলঙ্কার সঙ্গে খেলা, এরপর অস্ট্রেলিয়া আসবে। দর্শকরা মাঠে আসতে পারছে না জন্য টিভির সামনে বসে খেলা দেখছে আর আফসোস করছে। তবে সমর্থকদের উদ্দেশে বলবো, আপনারা আফসোস কইরেন না। করোনা পরিস্থিতি ভালো হলে আবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সুযোগ করে দিলে একসঙ্গে সমর্থন দিতে পারব।

Related posts

কোয়ার্টারের আগেই দেশে ফিরবে আর্জেন্টিনা

News Desk

করোনাভাইরাসের তৃতীয় ঢেউয়ের শঙ্কা

News Desk

যেকোনো উপায়ে করোনার টিকা সংগ্রহ করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

News Desk