free hit counter
খেলা

তীব্র গরম উপেক্ষা করে বাবরের ইতিহাস

কেন তিনি এই মুহূর্তে সব ফরম্যাট মিলিয়ে বিশ্বের সেরা ব্যাটার, সেটা আবারও প্রমাণ করলেন বাবর আজম। তীব্র গরম উপেক্ষা করেও তুলে নিয়েছেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারে নিজের ১৭তম সেঞ্চুরি। একই সঙ্গে নতুন ইতিহাসও রচিত করেছেন পাক অধিনায়ক। বুধবার (৮ জুন) মুলতানে সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুটি রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

তীব্র গরমের কারণে খেলা শুরু হতে দেরি হয়। টস জিতে স্থানীয় সময় বিকেল ৪টায় ব্যাটিংয়ে নামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শাই হোপের সেঞ্চুরির ওপর ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ৩০৫ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় সফরকারীরা। ১২৭ রান করেন হোপ। এছাড়া শ্যামরাহ ব্রোক ৭০, রোভম্যান পাওয়েল ৩২, রোমারিও শেফার্ড ২৫ ও অধিনায়ক নিকোলাস পুরান ২১ রান করেন। হারিস রউফ ৪টি, শাহিন শাহ আফ্রিদি ২টি এবং মোহাম্মদ নওয়াজ ও শাদাব খান একটি করে উইকেট শিকার করেন।



পরের গল্পটা কেবল বাবর আজমের। তাকে যোগ্য সঙ্গ দিয়েছেন ইমাম উল হক, মোহাম্মদ রিজওয়ান ও খুশদিল শাহ। পাকিস্তানের জয়ের ভিতটা গড়েছেন বাবর, আর ফিনিশিং করেছেন খুশদিল। সেঞ্চুরি করার পথে ইমাম ও রিজওয়ানের সঙ্গে দুটি শতরানের জুটি গড়েন পাক অধিনায়ক। আউট হওয়ার আগে ১০৭ বলে ১০৩ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন বাবর। এর মধ্য দিয়ে টানা তিন ওয়ানডেতে শতকের দেখা পেলেন তিনি। আগের দুটি করেন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচে।

এর আগে ২০১৬ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টানা তিনটি শতক হাঁকিয়েছিলেন বাবর। ওয়ানডেতে এমন ডাবলের কীর্তি এটাই প্রথম। আবার অধিনায়ক হিসেবে সবচেয়ে দ্রুততম এক হাজার রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন তিনি। মাত্র ১৩ ইনিংস লেগেছে তার। এতদিন রেকর্ডটি ছিল ভারতের সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলির। তার লেগেছিল ১৭ ইনিংস।

যাইহোক, শেষ পর্যন্ত ৪ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখে ম্যাচটি জিতে নিয়েছে পাকিস্তান। ইমাম উল হক ৬৫, মোহাম্মদ রিজওয়ান ৫৯ ও খুশদিল শাহ ২৩ বলে ৪১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন। এর মধ্য দিয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল স্বাগতিকরা।

Source link