free hit counter
খেলা

ড্র দিয়ে লা লিগার নতুন মৌসুম শুরু করলো বার্সেলোনা

রায়ো ভায়োকানোর সাথে গোলশূন্য ড্রয়ের মাধ্যমে লা লিগার নতুন মৌসুম শুরু করেছে বার্সেলোনা। পয়েন্ট হারানোর পাশাপাশি অধিনায়ক সার্জিও বাসকুয়েটের লাল কার্ড কাতালান জায়ান্টদের জন্য দুঃশ্চিন্তা বয়ে এনেছে।

রায়োর পোস্টে বার্সেলোনা ২১টি শট নিলেও সবকটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়েছে। ক্যাম্প ন্যুতে ম্যাচের বেশীরভাগ পজিশনই বার্সার দখলে থাকলেও পুরো ৯০ মিনিট তারা ডেডলক ভাঙ্গতে পারেনি। 

অথচ নতুন মৌসুমকে সামনে রেখে বার্সা বস জাভি দলে ভিড়িয়েছেন ডিফেন্ডার আন্দ্রেস ক্রিস্টেনসেন, উইঙ্গার রাফিনহা ও স্ট্রাইকার রবার্ট লিওয়ানোদস্কির মত তারকা খেলোয়াড়দের। 
বার্সেলোনার অভিজ্ঞ ডিফেন্ডার এরিক গার্সিয়া বলেছেন, ‘আমরা জিততে পারতাম, কিন্তু এখন আমাদের নিজেদের ভুলগুলো শুধরে উঠতে হবে। আগামী সপ্তাহে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ম্যাচটি নিয়ে এখন থেকেই ভাবতে হবে। সঠিক উপায়ে আমরা মৌসুমটা শুরু করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু একইসাথে আমরা জানতাম গত বছর রায়ো আমাদের অনেক সমস্যায় ফেলেছিল। আজকেও রক্ষণভাগে তারা অসাধারণ খেলেছে।’

প্রথমার্ধে স্বাগতিক বার্সেলোনা আধিপত্য দেখিয়েছে। বার্সার জার্সি গায়ে প্রথম প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে নেমে লিওয়ানোদস্কি বেশ কিছু সুযোগ তৈরি করেছিলেন। ওসমানে ডেম্বেলে পাস থেকে একটি গোলও তিনি করেছিলেন কিন্তু পোলিশ এই ফরোয়ার্ডের গোলটি অফসাইডের কারণে বাতিল হয়ে যায়। 

বৃষ্টির কারণে কাল ক্যাম্প ন্যু’র তাপমাত্রা হয়েছিল ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কিছুটা বৈরী আবহাওয়ায় দুই দলেরই খেলতে সমস্যা হয়েছে। ১০ মিনিটে পেড্রি বার্সাকে প্রায় এগিয়েই দিয়েছিলেন। কিন্তু তার কার্লিং শটটি অল্পের জন্য পোস্টের বাইরে দিয়ে চলে যায়। প্রথমার্ধের আধিপত্য সত্ত্বেও বার্সা গোলরক্ষক মার্ক টার স্টেগানকে পরীক্ষা দিতে হয়েছে। প্রথমার্ধের ইনজুরি টাইমে রায়োর আলভারো গার্সিয়ার শটটি দুর্দান্ত দক্ষতায় তিনি রক্ষা না করলেও পিছিয়ে থেকেই হয়ত বিরতিতে যেতে হতো বার্সাকে। 



দ্বিতীয়ার্ধেও বার্সা একের পর এক আক্রমণ চালিয়েছে। কিন্তু রায়োর শক্ত রক্ষণ দূর্গ ভাঙ্গতে পারেনি। বিশেষ করে গোলরক্ষক স্টোল দিমিত্রিয়েভিস্কি ছিলেন দুর্দান্ত। দ্বিতীয়ার্ধ শুরুর প্রথম ১০ মিনিট দুইবার তিনি রায়োকে নিশ্চিত গোলের হাত থেকে রক্ষা করেন। ৬০ মিনিটে জাভি ডাচ মিডফিল্ডার ফ্রেংকি ডি জংকে গাভির বদলী হিসেবে মাঠে নামান। 

যদিও ডি জংয়ের বার্সা ছাড়ার সম্ভাবনা এখনো শেষ হয়ে যায়নি। শেষ ৩০ মিনিটে রায়ো কোচ আন্ডোনি ইরোলাও খেলোয়াড় পরিবর্তন করে ম্যাচের ভাগ্য বদলানোর চেষ্টা করেছেন। এ সময় কলম্বিয়ান অভিজ্ঞ স্ট্রাইকার রাদামেল ফ্যালকাওয়ের রায়োর জার্সি গায়ে অভিষেক হয়। ম্যাচ শেষের ৯ মিনিট আগে ডি জংয়ের সহায়তায় লিওয়ানোদস্কি একটি সুযোগ তৈরী করলেও তা কাজে আসেনি। সাত মিনিট পর বার্সার আরেক গ্রীষ্মকালীণ চুক্তির মিডফিল্ডার ফ্র্যাংক কেসির গোল অফসাইডের কারনে বাতিল হয়ে যায়। 

এসি মিলান থেকে আসা এই মিডফিল্ডার দিমিত্রিয়েভিস্কিকে পরাস্ত করেছিলেন। ইনজুরি টাইমে ফ্যালকাওকে কনুই দিয়ে আঘাত করার অপরাধে অধিনায়ক বাসুকুয়েটস লাল কার্ড পেলে বার্সেলোনাকে ১০জন নিয়ে ম্যাচ শেষ করতে হয়েছে। এর ৬০ সেকেন্ডের মধ্যে ফ্যালকাও গোল দিলেও অফসাইডের কারনে এটিও বাতিল হয়ে যায়। এর ফলে কাতালানদের বিপক্ষে টানা তৃতীয় ম্যাচে জয় বঞ্চিত হতে হয় রায়োকে। 

এর আগে ২১ বছর বয়সী উইঙ্গার এ্যালেক্স বায়েনার দুই গোলে রিয়াল ভায়োদোলিদকে ৩-০ গোলে পরাজিত করেছে ভিয়ারিয়াল। লা লিগায় এটি বায়েনার অষ্টম ম্যাচ। আরেক ম্যাচে ৯৭ মিনিটে ফরোয়ার্ড জোসেলুর গোলে সেল্টা ভিগোর সাথে ২-২ গোলের ড্র নিয়ে মাঠ ছেড়েছে এস্পানেয়ল।

Source link