free hit counter
খেলা

ছুটি কাটিয়ে রোজারিও থেকে বার্সেলোনায় মেসি

লিগ মৌসুম শেষ হওয়ার পর জাতীয় দলের হয়ে দারুণ দুটি অ্যাসাইনমেন্ট শেষ করেছেন লিওনেল মেসি। এরপর দুর্দান্ত একটি ছুটিও কাটালেন নিজের জন্মস্থান আর্জেন্টিনার রোজারিওয়।

অবশেষে সেই ছুটিও শেষ হয়ে এলো। এবার শুরু হবে নতুন মৌসুম। সে জন্য নিজের জন্মস্থান থেকে ফিরে আসতে হবে ব্যস্ততম শহর প্যারিসে। পিএসজির হয়ে নিতে হবে প্রস্তুতি।

সে লক্ষ্যেই মঙ্গলবার রাতে রোজারিও থেকে নিজের ব্যক্তিগত বিমানে চড়ে বসলেন মেসি এবং তার পরিবার। পরিবার বলতে সবাই- স্ত্রী আনতোনেল্লা রোকুজ্জো, তিন ছেলে থিয়াগো, মাতেও এবং সিরো।

তবে, মেসির বিমান প্যারিসে নয়, ল্যান্ড করেছে বার্সেলোনায়। শুধু তাই নয়, বার্সেলোনা বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন বেশকিছু বার্সা সমর্থকও। যারা স্বাগত জানিয়েছেন মেসিকে, তার সঙ্গে ছবি তুলেছেন, অটোগ্রাফ নিয়েছেন।

আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের হয়ে ১ জুন লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে ইতালির বিপক্ষে খেলেছেন ফাইনালিসিমা। ৩-০ গোলে জিতেছিল আর্জেন্টাইনরা। এরপর এস্তোনিয়ার বিপক্ষে একাই ৫ গোল করেছেন মেসি।

ছুটি কাটিয়ে এখন কর্মব্যস্ত দিনেই ফেরা নয়, ক্লাব ফুটবলের প্রস্তুতির সঙ্গে মৌসুমের মাঝপথে বিশ্বকাপের জন্যও এখন প্রস্তুতি নিতে হবে মেসিদের।

আর্জেন্টিনা সময় মঙ্গলবার রাত ৮টা ৪০ মিনিটে রোজারিও থেকে ব্যক্তিগত বিমানে চড়েন মেসি। বার্সেলোনায় যখন তার বিমান ল্যান্ড করে, তখন বার্সার স্থানীয় সময় ছিল দুপুর ২টা ২০ মিনিট। বিমানবন্দর থেকে মেসি চলে যান, বার্সায় দীর্ঘদিন যে বাড়িটিতে থেকেছেন, সেটি দেখার জন্য।

২০ বছরেরও বেশি সময় বার্সেলোনা শহরটিতে কাটিয়েছেন মেসি। বাড়িটিও তার আপন হয়ে গিয়েছিলো। সন্তানদের জন্ম, বেড়ে ওঠা- সবই এই বাড়িতে। সুতরাং, বাড়িটির প্রতি মায়া কাটানো এত সহজ নয়। এ কারণে সুযোগ পেয়েই সেই পুরনো বাড়িটিতে চলে আসলেন মেসি।

তবে, প্যারিসে ফেরার আগে মেসির গন্তব্য কোথায় আপাতত সেটা কেউ বলতে পারেনি। কারণ, তিনি বার্সেলোনা আরও থাকবেন নাকি প্যারিসে যাবেন সেটা নিশ্চিত নয়। আর্জেন্টিনার টিওয়াইসি স্পোর্টস তাদের রিপোর্টে বলছে, স্পেনে বেশ কিছু দুর্দান্ত সমূদ্র সৈকত রয়েছে। সেগুলোর কোনো একটিতে গিয়ে সময় কাটাতে পারে মেসি পরিবার।

সাধারণত মেসি-রোকুজ্জোরা ছুটি কাটান গিয়ে ইবিজা সৈকতে। যদিও গত বছর তারা গিয়েছিল ডমিনিকান রিপাবলিকে। তবে, ইবিজায় শুধু মেসি একা নয়, সঙ্গে থাকে লুইস সুয়ারেজ, সেস ফ্যাব্রেগাস এবং তাদের পরিবারের সদস্যরাও। বেশ কয়েকবার এমনটা দেখা গিয়েছিল।

মেসির ক্লাব পিএসজির প্রাক-প্রস্তুতি শুরু হবে ৪ জুলাই থেকে। পিএসজি খেলোয়াড়রা জানেন, তাদেরকে প্রাক-প্রস্তুতি হিসেবে সফর করতে হবে জাপানে। সেখানে তারা খেলতে তিনটি প্রস্তুতিমূলক ম্যাচ। পিএসজির এই তিন প্রস্তুতিমূলক ম্যাচের প্রতিপক্ষ হচ্ছে কাওয়াসাকি ফ্রন্টাল, উরাওয়া রেড ডায়মন্ডস এবং গাম্বা ওসাকা।