free hit counter
করোনার কারণে কানাডার গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি লিগ মালয়েশিয়ায়
খেলা

করোনার কারণে কানাডার গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি লিগ মালয়েশিয়ায়

আগামী ২৮ জুন থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত হবে ছয় দলের এই টুর্নামেন্ট। ক্রিকেট কানাডা ও বোম্বে স্পোর্টস কোম্পানি লিমিটেডের যৌথ উদ্যোগে এই টুর্নামেন্টের তৃতীয় আসর হবে এবার। ২০১৮ ও ২০১৯ সালে দুটি আসর হওয়ার পর গতবার করোনার কারণে টুর্নামেন্ট আয়োজন করা সম্ভব হয়নি। একই কারণে এবারও উত্তর আমেরিকা থেকে টুর্নামেন্ট সরিয়ে আনা হলো এশিয়ায়।

কুয়ালা লামপুরের কাছে কিনরারা ওভাল মাঠে ১৮ দিনের টুর্নামেন্টে ম্যাচ হবে ২২টি। এই প্রসঙ্গে ক্রিকেট কানাডার প্রেসিডেন্ট রাসপাল বাজওয়া বলেন, ‘কানাডার ভক্ত ও ক্রিকেটাররা শুনে হতাশ হবে যে বিশ্বমানের টি-টোয়েন্টি লিগ এবার করোনা মহামারির জন্য কানাডায় অনুষ্ঠিত হবে না।আমরা স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের বিষয়টি বুঝতে পারছি।’

‘আমরা ইতিবাচক যে মহামারির মধ্যেও কানাডার এই লিগটিকে বিশ্বের কাছে উপস্থাপন করতে পারছি। আমি খুবই উত্তেজিত, কানাডার ক্রিকেটার ও সমর্থকদের সাথে গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি ভাগ করে নিতে পারবো। মালয়েশিয়া ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন আমাদের খুব ভালো বন্ধু, তারা গ্লোবাল টি-টয়েন্টি লিগের তৃতীয় আসর আয়োজন করতে রাজি হয়েছে এবং তারা প্রয়োজনীয় অনুমতি পেয়ে গেছে’, আরও যোগ করেন তিনি।

গ্লোবাল টি-টোয়েন্টির আগের দুই আসরে খেলেছেন ক্রিস গেইল, আন্দ্রে রাসেল, লাসিথ মালিঙ্গা, শহিদ আফ্রিদি, ব্রেন্ডন ম্যাককালাম, শোয়েব মালিক, যুবরাজ সিং, স্টিভেন স্মিথ, কাইরন পোলার্ড, ডেভিড ওয়ার্নারের মতো তারকারা।

বিদেশি তারকাদের মধ্যে প্রতি দলে ‘মারকি’ ক্রিকেটার থাকেন দুজন করে। সব দলের স্কোয়াডে কানাডার ক্রিকেটার রাখতে হয় ছয়জন করে, তাদের মধ্যে অন্তত তিনজন হতে হয় ইমার্জিং ক্রিকেটার। এবার মালয়েশিয়ার একজন ক্রিকেটারও রাখতে হবে প্রতি দলে।