Image default
খেলা

গোল করতে গিয়ে রক্ষণের কথা ভুলে গিয়েছিল বার্সা

‘বুড়ো পিকেকে দিয়ে আর রক্ষণ সামলানো যাবে না’, ‘ফরোয়ার্ডরা এগিয়ে দিয়েছে, আর ডিফেন্ডাররা পিছিয়ে দিয়েছে’—গতকাল রাতে ইন্টার মিলানের বিপক্ষে ৩-৩ গোলে ড্রয়ের পর থেকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমজুড়ে বার্সেলোনার সমর্থকদের এমন হাহাকারই শুধু শোনা যাচ্ছে। রক্ষণের ভুলেই মূলত ইন্টারের বিপক্ষে ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যুতে জয়হীন থাকতে হয়েছে বার্সাকে। এ ড্রয়ে বার্সার চ্যাম্পিয়নস লিগে টিকে থাকাও এখন শঙ্কার মুখে পড়েছে।

সমর্থকেরাই শুধু নন, কাতালান ক্লাবটি আক্রমণে জোর দিতে গিয়ে রক্ষণ সামলানোর কথা ভুলে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন দলের তারকা স্ট্রাইকার রবার্ট লেভানডফস্কিও। জোড়া গোলে উদ্ধারের চেষ্টা করেও শেষ পর্যন্ত দলকে জেতাতে পারেননি লেভা।

চ্যাম্পিয়নস লিগে নকআউট পর্বের আশা ভালোভাবে বাঁচিয়ে রাখতে বার্সার জয়ের কোনো বিকল্প ছিল না। শুরু থেকেই আক্রমণে গিয়ে নিজেদের বার্তাও জানিয়ে দিয়েছিল কাতালান ক্লাবটি। বার্সাকে থামাতে ইন্টারও কৌশলে পরিবর্তন আনে।

দুই উইংব্যাককে নিচে নামিয়ে পাঁচজন দিয়ে রক্ষণকে আরও দৃঢ় করে তারা। ইন্টারের সেই রক্ষণদেয়াল ভাঙতে আক্রমণে শক্তি বাড়াতে হয় বার্সাকে। তাতে গোলও এসেছে, তবে সর্বনাশ হয়েছে অন্য জায়গায়। আক্রমণভাগে শক্তি বাড়াতে রক্ষণে শূন্যতা সৃষ্টি হয়। আর এ সুযোগ কাজে লাগাতে ভুল করেনি ইতালিয়ান ক্লাবটি, দারুণ লড়াইয়ের পর ন্যু ক্যাম্প থেকে এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছে।

ম্যাচের শেষ দিকে দারুণ নৈপুণ্যে পোলিশ স্ট্রাইকার লেভানডফস্কি চেষ্টা করেছিলেন দলকে উদ্ধার করতে। তবে ডিফেন্সের ঘাটতি আক্রমণ দিয়ে দূর করতে পারেনি বার্সা। শেষ পর্যন্ত মিলেছে ড্রয়ের হতাশা।

কোথায় ভুল হয়েছে জানাতে গিয়ে লেভা বলেছেন, ‘আমাদের গোল করার আকাঙ্ক্ষা এত বেশি ছিল, অনেক সময় নিজেদের রক্ষণ এবং তাদের (ইন্টার) প্রতি–আক্রমণের কথা ভুলে গিয়েছিলাম। ইন্টার সহজেই আমাদের গোলের খোঁজ পেয়ে গিয়েছিল।’

কেন গোলের জন্য অলআউট আক্রমণে যেতে হয়েছিল বার্সাকে, জানতে চাইলে লেভার উত্তর, ‘ইন্টার স্ট্রাইকারদের জন্য কঠিন প্রতিপক্ষ। তারা ৫ জন খেলোয়াড় নিয়ে ডিফেন্ড করেছে এবং সেখানে একজন ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডারও ছিল। তাই আমরা চেষ্টা করেছি বেশি খেলোয়াড় নিয়ে আক্রমণে যাওয়ার। ফলে আমাদের কেউ জায়গা হারাতে পারে। আমরা তিন গোল করেছি এবং সমানসংখ্যক গোল হজমও করেছি। জিততে না পেরে হতাশ।’

তবে বার্সার এই পরিণতির দায় এড়াতে পারেন না ডিফেন্ডার জেরার্দ পিকে। ৫০ মিনিটে নিকোলা বারেল্লার প্রথম গোলটি যে তারই ভুলে হজম করতে হয়েছে জাভি হার্নান্দেজের দলকে। আলেসান্দ্রো বাস্তোনির ক্রসটা চাইলে আটকানোর চেষ্টা করতে পারতেন কিংবা পিছিয়ে গিয়ে বারেল্লাকে কাভার করার চেষ্টা করতে পারতেন। তবে কিছুই না করে শুধু তাকিয়ে দেখেছেন যেন। ইন্টারকে ম্যাচে ফেরার সুযোগ করে দিয়েছে সেটিই।

রক্ষণে ভুলের সঙ্গে চোটের কারণেও দল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে মনে করেন লেভা, ‘সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে আমাদের অনেকে চোটে পড়েছে। সব সময় লাইনআপ বদলানো সহজ ব্যাপার নয়। আমাদের স্থিতিশীলতার ঘাটতি আছে।’

Related posts

অলিভিয়া কুলপো খ্রিস্টান ম্যাকক্যাফ্রির বিবাহে কী করবেন না: ‘এই দিনগুলিতে কম সাধারণ’

News Desk

বাংলাদেশের বিপক্ষে ভারতের শক্তিশালী উত্থান

News Desk

শোহেই ওহতানির প্রাক্তন অনুবাদক ইপেই মিজুহারা $ 17 মিলিয়ন জালিয়াতির মামলায় দোষী নন

News Desk

Leave a Comment