free hit counter
এরিকসেনকে সামনে রেখে লেখা হচ্ছে নতুন রূপকথা
খেলা

এরিকসেনকে সামনে রেখে লেখা হচ্ছে নতুন রূপকথা

নিশ্চিত ডেনমার্ক দলটির সেরা তারকার নাম ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন। ইতালিয়ান ক্লাব ইন্টার মিলানে খেলেন। এবার সিরি-আ চ্যাম্পিয়ন করিয়েছেন দলকে। অথচ তাকেই কি না প্রথম ম্যাচে হারিয়ে ফেলেছিল ডেনমার্ক। ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচের ৪৩ মিনিটের মাথায় অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েছিলেন। পরে জানা গেছে, তিনি হার্ট অ্যাটাক করেছিলেন।

এরিকসেন সুস্থ হয়েছেন। তবে মাঠে ফিরতে পারেননি। কিন্তু যে তেজ তিনি জ্বালিয়ে দিয়েছেন সতীর্থদের মাঝে, তাতেই জ্বলে-পুড়ে খাক হয়ে যাচ্ছে প্রতিপক্ষরা। একই স্বপ্নের অভিযাত্রা অব্যাহত রেখেছে ডেনমার্ক। এখন তারা সেমিফাইনালে লড়াই করবে ইংল্যান্ডের। এই একটি ধাপ পেরুতে পারলেই পৌঁছে যাবে স্বপ্নপূরণের সিঁড়ির সামনে।

এবারের ইউরো জয়ের জন্য ডেনমার্ক কী ফেবারিট? ফুটবল বিশেষজ্ঞরা হয়তো এ বিষয়ে একমত হবেন, চেক রিপাবলিক ম্যাচের আগ পর্যন্ত সবারই মত হয়তো একই হত, সকলেই বলতেন ‘না’।তাহলে কিভাবে, কার জন্য লেখা হচ্ছে ফুটবল মাঠের এই ডেনিশ রূপকথা? ডেনমার্ক শিবিরে কান পাতলেই এর উত্তর পাওয়া যাবে।

প্রথম ম্যাচে ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে এরিকসেন হার্ট অ্যাটাক করেন। ওই ম্যাচে ফিনল্যান্ডের বিরুদ্ধে ডেনিশরা হেরে গেলেও এখন তারা উঠে গেছে সেমিফাইনালে। দলের অধিনায়ক সিমোন কায়ের বলেছেন, ‘তাদের এই সাফল্যের নেপথ্যে রয়েছেন এরিকসেন। এবারের ইউরোতে ডেনিশরা এতটা ভালো খেলবে বলে ধারনা করতে পারেননি অনেকেই। হঠাৎ করে তাদের এত ভালো ফুটবল উপহার দেওয়ার রহস্য কী? সেটা চেকদের হারিয়ে সেমিফাইনালে ওঠার পর জানিয়েছেন দলের অধিনায়ক সিমোন কায়ের।

এরিকসেনের হঠাৎই অসুস্থ হওয়ার বিষয়টি তাদের জন্য বিশেষ প্রেরণা দিয়েছে। এরিকসেনের জন্যই তারা নিজেদের সর্বস্ব দিয়ে খেলেছেন। শেষ ষোলোর ম্যাচ শেষে সিমোন কায়ের বলেছেন, ‘এরিকসেনের অসুস্থতা দলটিকে বিশেষ কী যেন এনে দিয়েছে। এই ঘটনার পর আমরা বুঝতে পেরেছি যে আমাদের মধ্যে কেউ যদি বিপদে পড়ে তাহলে তার জন্য কেউ না কেউ আছে। এটা আমাদের নিরাপত্তা দিয়েছে এবং অবশ্যই ক্রিশ্চিয়ানকেও একটা ভালো অনুভূতি দিয়েছে।

Related posts

৫৫ বছর অপেক্ষার পর স্বপ্নের ফাইনালে ইংল্যান্ড

News Desk

৫৩ বছর পর ইউরোর চ্যাম্পিয়ন ইতালি

News Desk

ইতালির গোলরক্ষকের হাতে উঠলো গোল্ডেন বল

News Desk