এমন এক টেস্ট, যেখানে চারদিন শেষে কোণঠাসা ছিল ভারতই। পঞ্চম দিনে ভোজবাজির মত পাল্টে গেল সব। হারের শঙ্কায় থাকা বিরাট কোহলির দল লর্ডস টেস্ট জিতে নিল ১৫১ রানের বড় ব্যবধানে!

১৮২ রান এগিয়ে থেকে হাতে মাত্র ২ উইকেট ছিল সফরকারিদের। হারের শঙ্কা তাই ভর করেছিল ভারতের ওপর। স্বীকৃত ব্যাটসম্যান বলতে যে আর কেউই ছিলেন না। কিন্তু মোহাম্মদ শামি (৫৬*) আর জাসপ্রিত বুমরাহ (৩৪*) ২০ ওভারের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে যোগ করে দেন মহাগুরুত্বপূর্ণ ৮৯ রান।

তাদের এই জুটিতেই ভারত চাপমুক্ত হয়ে ৮ উইকেটে ২৯৮ রান নিয়ে উল্টো ইনিংস ঘোষণা করার সাহস দেখায়। যার ফলে ইংল্যান্ডের সামনে জয়ের লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৭২ রানের। দিনের খেলা তখন বাকি ৬০ ওভারের মতো।

তখনও মনে হচ্ছিল ভারত হার এড়ালেও ম্যাড়ম্যাড়ে ড্রয়েই শেষ হবে লর্ডস টেস্ট। কিন্তু কোহলির দলে বুমরাহ-সিরাজরা এই ৬০ ওভারও টিকতে দেননি স্বাগতিকদের। শেষ ঘণ্টায় যখন ৮ ওভারের মত বাকি, তখনই জয়োল্লাসে মাতে ভারতীয় শিবির।

ম্যাচ শেষে কোহলি বললেন, তাদের বিশ্বাস ছিল ৬০ ওভারেই ইংল্যান্ডের ১০ উইকেট তুলে নেয়া সম্ভব হবে। তারপরও এই জয়কে একদম অন্য কাতারে রাখছেন ভারতীয় অধিনায়ক। কোহলি বলেন, ‘আমাদের মনে হয়েছিল ৬০ ওভার যথেষ্ট সময় ইংল্যান্ডের দশ উইকেট ফেলার জন্য। তবে এই জয় একেবারে আলাদা।’

দুই ইনিংসে ৪টি করে ৮ উইকেট নেয়া মোহাম্মদ সিরাজের দারুণ বোলিংয়ের প্রশংসা করলেন, সঙ্গে ভারতীয় সমর্থকদেরও কৃতিত্ব দিলেন কোহলি।

তিনি বলেন, ‘প্রথমবার লর্ডসে খেলতে এসে সিরাজ দারুণ বল করেছে। প্রথম দিকে ওদের কিছু উইকেট পেয়ে যাওয়ায় কাজটা কিছুটা সহজ হয়ে যায়। সোমবার পরের দিকে গোটা স্টেডিয়ামের সমর্থন সামাদের সঙ্গে ছিল। এতে আমাদের উৎসাহ বেড়ে যায়।

Related posts

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো মনে করেন সৌদি প্রফেশনাল লিগ এমএলএসের চেয়ে ভালো

News Desk

'আম্পায়ারের অনুমতি নিয়েই মাঠে নেমেছিলেন সাকিব'

News Desk

লন্ডনের মেয়র বলেছেন যে তিনি সুপার বোল শহরে আসতে চান: ‘আমাদের জন্য সত্যিই গুরুত্বপূর্ণ’

News Desk

Leave a Comment