free hit counter
ইব্রাহিমোভিচ এর লাল কার্ড, ৩-১ গোলে মিলানের জয়
খেলা

ইব্রাহিমোভিচ এর লাল কার্ড, ৩-১ গোলে মিলানের জয়

লাল কার্ড দেখেই মাঠ ছাড়তে হয়েছে এসি মিলানের সুইডিশ সুপার স্টার জ্লাটান ইব্রাহিমোভিচ। ম্যাচের বয়স ঘন্টার কাঁটা পার হতে না হতেই ১০ জনের দলে পরিণত হয়েছিল মিলান। কিন্তু লাল কার্ড দেখার আগেই প্রথমার্ধে নিজের দায়িত্বটুকু ঠিকই পালন করে গেছেন ইব্রা। বানিয়ে দিয়েছিলেন প্রথম দুটি গোল। ফলে ১০ জনের দল হওয়ার পরও শনিবার মিলান ৩-১ গোলে হারিয়ে দেয় পারমাকে। ওই জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফিরতি লেগের আগে নিজেদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নিয়েছে এসি মিলান।

স্তাদিও এনিও টর্ডিনিতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ২ গোলে এগিয়ে থাকা মিলানের ৩৯ বছর বয়সী সুইডিশ তারকা ইব্রা রেফারির সঙ্গে তর্ক করার অপরাধে সরাসরি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন। ইব্রা বিদায় নেয়ার কয়েক মিনিট পরেই পয়েন্ট তালিকার ১৯তম অবস্থানে থাকা পারমার হয়ে একটি মাত্র গোল পরিশোধ করেছেন রিকার্ডো গাজলিওলো। তবে শেষ দিকে ভীতি কাটিয়ে উঠে মিলান। এবং অতিরিক্ত সময়ের তৃতীয় মিনিটে ফের গোল করে ব্যবধান বাড়িয়ে দেন বদলি খেলোয়াড় রাফায়েল লিয়াও।

তালিকার শীর্ষে থাকা ইন্টারের সঙ্গে অবশ্য ৮ পয়েন্টের ব্যবধান কমিয়ে এনেছে দ্বিতীয় স্থানে থাকা নগর প্রতিদ্বন্দ্বি এসি মিলান। নিজেদের মাঠে ইন্টার আতিথেয়তা দিবে তালিকার ১৮তম স্থানে থাকা কাগলিয়ারির। ২০১৩-১৪ মৌসুমের পর মিলানকে প্রথম বারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা এনে দিতে মরিয়া কোচ স্টেফানো পিউলি। এসি মিলানের চেয়ে চার পয়েন্টে পিছিয়ে তালিকার তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ধুঁকতে থাকা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস। পরের ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ জেনোয়া।

পিউলি বলেন, ‘এটি ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ জয়। ইব্রা আমাকে বলেছেন যে তিনি রেফারিকে মোটেই অপমান করেননি। তিনি বলেন, আমি শুধু আলোচনা করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু উল্টো তিনি ভুল বুঝে অসম্মান দেখানোর অজুহাত দেখিয়ে আমাকে লাল কার্ড দেখিয়ে দেন। আসলে আমি তাকে অপমান করিনি।’

ম্যাচের ৮ মিনিটেই গোল করে মিলানকে এগিয়ে দেন রেবিচ। ৪৪ মিনিটে কেসিয়ের গোলে দ্বিগুণ ব্যবধানে পৌছে যায় মিলান। ইব্রা লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়ার পর পারমার হয়ে ৬৬ মিনিটে গাজলিওলো গোল করলে (ব্যবধানে ২-১ গোলে নেমে আসে। ইনজুরি টাইমে (৯০+৪) বদলি হিসেবে আসা রাফায়েল গোল করলে ৩-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এসি মিলান। শনিবার অনুষ্ঠিত সিরি এ লিগের অন্য দুই ম্যাচে জয় পেয়েছে স্পেজিয়া ও তুরিনো। স্পেজিয়া ৩-২ গোলে ক্রোটনকে এবং তুরিনো ১-০ গোলে উদিনেসকে হারিয়েছে।

Related posts

শিরোপা জেতার সব আশা শেষ রোনালদোদের

News Desk

শিরোপা থেকে ক্রমেই দূরে সরছে রোনালদোর জুভেন্টাস

News Desk

আবারও হোঁচট খেলো রোনালদোদের জুভেন্টাস

News Desk