free hit counter
খেলা

ইতিহাস গড়ে ইউএস ওপেন জিতলেন সিওনতেক 

২০১৬ সালের পর প্রথম নারী খেলোয়াড় হিসেবে এক বছরে দুটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের কৃতিত্ব দেখালেন পোলিশ তারকা ইগা সিওনতেক। চলতি বছর জুন মাসে জিতেছিলেন ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা, এবার টেনিসের নাম্বার ওয়ান তারকা জিতলেন বছরের শেষ গ্র্যান্ড স্ল্যাম ইউএস ওপেন।

শনিবারের ফাইনালে তিউনিশিয়ার ওনস জাবিরকে ৬-২, ৭-৬ (৭/৫) গেমে পরাজিত করে প্রথমবারের মত ইউএস ওপেন ও ক্যারিয়ারের তৃতীয় গ্র্যান্ড স্ল্যাম জিতে নিয়েছেন ২১ বছোর বয়সী পোলিশ তারকা। নিউ ইয়র্কের আর্থার অ্যাশ স্টেডিয়ামে এক ঘন্টা ৫২ মিনিটের লড়াইয়ে পঞ্চম বাছাই জাবিরকে সরাসরি সেটে পরাজিত করেন সোয়াইটেক। 



এই নিয়ে ক্যারিয়ারের ১০ম শিরোপা জিতলেন এই পোলিশ তারকা। একইসাথে টুর্নামেন্টের ফাইনালে নিজের রেকর্ডকে আরো সমৃদ্ধ করে তুললেন। শেষ ১০টি ফাইনালে একটি সেটও না হেরে তিনি সবগুলোতে জয়ী হয়েছেন। 

অন্যদিকে পরাজয়ের মধ্য দিয়ে প্রথম আফ্রিকান হিসেবে নারীদের বিভাগে গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ের রেকর্ড গড়া হলোনা জাবিরের। ২৮ বছর বয়সী এই তিউনিশিয়ান জুলাইয়ে উইম্বলডনের ফাইনালেও পরাজিত হয়েছিলেন। পুরো টুর্নামেন্টে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা জাবির ফাইনালের পথে মাত্র একটি সেটে পরাজিত হয়েছিলেন। কিন্তু দূরন্ত সিওনতেকের বিপক্ষে কাল ফাইনালে পুরো ম্যাচে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি তিউনিশিয়ান তরুণী।

সিওনতেক তার নিখুঁত সার্ভিস ও অনন্য ফোরহ্যান্ডের মাধ্যমে একের পর এক পয়েন্ট আদায় করে নিয়েছেন জাবিরের কাছ থেকে। পোলিশ তারকার এই পারফরম্যান্সের বিপরীতে সাধারণত যে কোন খেলোয়াড়ই নতী স্বীকার করতে বাধ্য। জাবিরও তাই স্বাভাবিক ভাবেই পেরে উঠেননি। প্রথম সেটে খুব সহজেই মাত্র আট মিনিটের মধ্যে সিওনতেক এগিয়ে যান ৩-০ গেমে। এরপর অবশ্য পরপর দুই গেম জিতে ব্যবধান ৩-২’এ নামিয়ে নিয়ে আসেন জাবির। কিন্তু পঞ্চম বাছাই জাবির তার সার্ভিস গেমে আবারও পয়েন্ট হারিয়ে ৪-২ গেমে পিছিয়ে পড়েন। এরপর আবারও ব্রেক পয়েন্ট ছিনিয়ে নিয়ে ৬-২ গেমে প্রথম সেট জিতে নেন সিওনতেক।


 পোলিশ তারকা ইগা সিওনতেক।


 
দ্বিতীয় সেটেও প্রথমেই ব্রেক পয়েন্ট আদায় করে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে যান নাম্বার ওয়ান সিওনতেক। জাবির আবারও ঘুরে দাঁড়িয়ে ব্যবধান নামিয়ে আনেন ৩-২ গেমে। নিজের সার্ভিসের সুযোগ হাতছাড়া করে সিওনতেককে ব্রেক পয়েন্ট উপহার দেন জাবির। এই সময়ে তিউনিশিয়ান তারকা দারুনভাবে ম্যাচে ফিরে এসে হঠাৎ করেই ৪-৪’এ সমতা ফেরান। পরবর্তী তিনটি গেম ছিল শুধুমাত্র জাবিরের টিকে থাকার লড়াই সেই লড়াইয়ে তিনি জয়ী হলে ম্যাচটি গড়ায় টাইব্রেকে। টাইব্রেকে জাবির ৪-২ পয়েন্টে পিছিয়ে থাকার পর আবারও ঘুরে দাঁড়িয়ে ৫-৪ ব্যবধানের লিডও পান। কিন্তু এরপর আর সিওনতেককে পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। জাবিরকে আর কোন সুযোগই না দিয়ে একে একে সবগুলো পয়েন্ট নিয়ে নিজের প্রথম ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতে নেন সিওনতেক।

Source link