free hit counter
খেলা

আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে শুভসূচনা লঙ্কানদের

এবার আর কোন অঘটন না ঘটিয়ে সুপার টুয়েলভে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারিয়েছে শ্রীলঙ্কা। প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারের ৮ উইকেট হারিয়ে ১২৮ রান সংগ্রহ করে আয়ারল্যান্ড। রবিবার (২৩ অক্টোবর) হোবার্টের বেলেরিভ ওভালে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো আইরিশ অধিনায়ক অ্যান্ড্রু বালবার্নি। 



ব্যাট করতে নেমে প্রথম ওভারে মাত্র ২রান তোলে আইরিশিদের দুই ওপেনার পল স্টারলিং আর অ্যান্ড্রু বালবার্নি। বিপত্তির শুরু দ্বিতীয় ওভার থেকেই। লাহিরু কুমারার করা দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই বোলদ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন অধিনায়ক বালবার্নি। দ্বিতীয় উইকেটে জুটি গড়ার চেষ্টা করেছিলেন স্টারলিং আর লোরকান টাকার মিলে। তবে ১১ বলে ১০ রান করেই ফিরতে হয় টাকারকে। পঞ্চম ওভারে মহেশ থিকসানার বলে টাকার বোল্ড হলে ২৬ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় আইরিশরা।



চার নম্বরে নামা হ্যারি টেক্টরকে নিয়ে পালটা আক্রমণের চেষ্টা করেন আগের ক্যারবিয়ানদের বিপক্ষে আইরিশ জয়ের নায়ক স্টারলিং। তবে আজ আর পারেননি তেমন কিছু করতে। দলীয় ৫৫ রানে গিয়ে ধনঞ্জয়া ডি সিলভার বলে ফিরতে হয় তাকেও। ফেরার আগে করেন ২৫ বলে ৩৪ রান। এরপর মাত্র ২ রান করেই ফিরেছেন কার্টিস ক্যাম্ফার। পঞ্চম উইকজেট জুটিতে জর্জ ডকরেলকে সঙ্গে নিয়ে দল্কের রান যথাসম্ভব এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছেন টেক্টর। এই দুজনের ৪৭  রানের জুটিতেই ১০০ ছাড়িয়েছে দলের সংগ্রহ। ১০৭ রানের মাথায় থিকসানার বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন ডকরেল। 

১০ রান বাদেই টেক্টরকে ফেরান বিনুরা ফার্নান্দো। ৪২ বলে ৪৫ রান করে লঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন এই ব্যাটার। ১৯তম ওভারের প্রথম বলে গ্যারেথ ডিলানিকে ফেরনোর পর চতুর্থ বলে মার্ক অ্যাডাইরকে শূন্য রানেই ফেরান হাসারাঙ্গা ডি সিলভা।

শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৮ উইকেট হারিয়ে আয়ারল্যান্ড সংগ্রহ করতে পারে ১২৮ রান। লঙ্কানদের হয়ে দুটি করে উইকেট নিয়েছেন থিকসানা আর হাসারাঙ্গা।

১২৮ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে লঙ্কানদের উড়ন্ত সূচনা এনে দেন দুই উদ্বোধনী ব্যাটার কুশাল মেন্ডিস ও ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। দুজনই আগ্রাসী ব্যাটিং করতে থাকে। উদ্বোধনী জুটিতে ৬৩ রান তোলে এই দুই ব্যাটার। ইনিংসের নবম ওভারে প্রথম সাফল্যের দেখা পায় আইরিশরা। দলীয় ৬৩ রানে ২৫ বলে ৩১ রান করে স্পিনার গ্যারেথ ডেলানির শিকার হন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। এরপর ক্রিজে আসেন চারিথ আসালাঙ্কা।



অন্যদিকে নিজের সাবলীল ব্যাটিং চালিয়ে যান কুশাল মেন্ডিস। ৩৭ বলে নিজের অর্ধশতক পূরণ করেন এই ব্যাটার। অন্যদিকে কুশাল মেন্ডিসকে যোগ্য সঙ্গ দেন চারিথ আসালাঙ্কা। দুজন মিলে আর কোন বিপদ না ঘটিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন। কুশাল মেন্ডিস ছক্কা মেরে ম্যাচ শেষ করেন।



৫ ওভার হাতে রেখে ৯ উইকেটের বড় জয় পায় শ্রীলঙ্কা। কুশাল মেন্ডিস ৪৩ বলে ৬৮ ও চারিথ আসালাঙ্কা ২২ বলে ৩১ রান করে অপরাজিত থাকেন। এই জয়ে সুপার টুয়েলভে শুভসূচনা করলো লঙ্কানরা। 

Source link

Bednet steunen 2023