free hit counter
খেলা

আকাশচুম্বী বেতন দিয়ে ভিনিসিয়াসকে কেড়ে নিতে চেয়েছিল পিএসজি

কিলিয়ান এমবাপ্পেকে নিয়ে গত এক বছরে দলবদলের বাজারে রীতিমতো দড়ি টানাটানি করেছে রিয়াল মাদ্রিদ ও পিএসজি। শেষ পর্যন্ত তাতে জয় হয়েছে প্যারিসিয়ানদেরই। ফরাসি ক্লাবটির সঙ্গে গত মাসেই ২০২৫ সাল পর্যন্ত চুক্তি নবায়ন করেছেন ২২ বছর বয়সী এ উইঙ্গার।

তবে শুধু এমবাপ্পেই না, দলবদলের বাজারে আরও এক খেলোয়াড়কে ঘিরে রিয়াল আর পিএসজির মধ্যে লড়াই হয়েছিল। সেই খেলোয়াড়টি আর কেউ নন, ভিনিসিয়াস জুনিয়র। এমবাপ্পে রিয়ালে যোগ দিতে পারেন- এমন সম্ভাবনা থেকেই স্প্যানিশ ক্লাবটি থেকে ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গারকে প্যারিসে আনতে চেয়েছিল পিএসজি।

স্প্যানিশ দৈনিক মার্কার এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ভিনিসিয়াসকে দলে ভেড়াতে আকাশছোঁয়া বেতনের প্রস্তাব দিয়েছিল পিএসজি। অঙ্কটি রীতিমতো চোখ কপালে তোলার মতোই- মৌসুমপ্রতি ৪০ মিলিয়ন ইউরো, যা কি-না রিয়ালে এ ব্রাজিলিয়ান তরুণের বর্তমান বেতনের তুলনায় ১২ গুণ বেশি। সেই সঙ্গে বড় অঙ্কের সাইনিং বোনাস এবং কাতারে ব্যবসায়েরও সুযোগও দিতে চেয়েছিল পিএসজি।

তবে পিএসজির সব প্রস্তাবকে প্রত্যাখ্যান করে রিয়ালেই থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। সঙ্গে রয়েছেন লস ব্লাংকোসদের সঙ্গে চুক্তি নবায়নের দ্বারপ্রান্তেও। নতুন চুক্তিতে পিএসজির মতো অভাবনীয় অঙ্কের বেতন না পেলেও ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ডের পারিশ্রমিক আগের বর্তমানের চেয়ে বাড়বে নিঃসন্দেহে।

রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে ভিনিসিয়াসের বর্তমান চুক্তির মেয়াদ ২০২২-২৩ মৌসুম পর্যন্ত। মূলত এ চুক্তির মেয়াদ শেষেই তাকে বিনামূল্যে নিজেদের ডেরায় আনতে চেয়েছিল পিএসজি। গত নভেম্বর-ডিসেম্বর থেকেই এ প্রক্রিয়া শুরু করেছিল প্যারিসের দলটি। সেই চেষ্টা অব্যাহত ছিল এ বছরের মার্চ পর্যন্ত। ভিনিসিয়াসের সঙ্গে সরাসরি বসতেও চেয়েছিল পিএসজি। কিন্তু দুই পক্ষের মধ্যকার বৈঠকটি আর টেবিল পর্যন্তই গড়ায়নি।

স্প্যানিশ টিভি অনুষ্ঠান এল চিরিঙ্গুইতোয় রিয়াল মাদ্রিদ প্রেসিডেন্ট জানান, শুধু পিএসজিই না; ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, লিভারপুল, চেলসির মতো ইংলিশ জায়ান্টরাও ভিনিসিয়াসের দরজায় কড়া নেড়েছিল। তবে সবার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়ে স্পেনের রাজধানীতেই নিজের ক্যারিয়ার এগিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করেছেন তিনি।

২০১৮ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সে রিয়াল মাদ্রিদে পা রাখেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। এরপর গত চারটি মৌসুম তার ফর্ম বেশ ওঠানামা করেছে। তবে সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমে ভিনিসিয়াস যেন আবির্ভূত হয়েছিলেন অন্যরূপে। ২০২১-২২ মৌসুমে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ১৭ গোল করার পাশাপাশি ১৩ গোলে প্রত্যক্ষ ভূমিকাও রেখেছেন তিনি। ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে লিভারপুলের বিরুদ্ধে ভিনিসিয়াসের করা একমাত্র গোলেই ১৪তম চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপা ঘরে তোলে রিয়াল মাদ্রিদ।

রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে অবশ্য এখনও চুক্তি নবায়ন করেননি ভিনিসিয়াস। তবে খুব শিগগিরই তা হয়ে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ভিনিসিয়াসের সঙ্গে ২০২৮ সাল পর্যন্ত চুক্তি করতে চেয়েছিল রিয়াল। তবে ভিনিসিয়াসের অনুরোধে ২০২৬ বা সর্বোচ্চ ২০২৭ সাল পর্যন্ত তার সঙ্গে চুক্তি নবায়ন হবে বলে গুঞ্জন। এ সময়ে ২১ বছর বয়সী উইঙ্গার বোনাস ছাড়া প্রতি মৌসুমে ১০-১২ মিলিয়ন ইউরো বেতন পাবেন।