free hit counter
খেলা

আইস্টাইনের মস্তিস্ক কিভাবে চুরি হয়েছিল?

বিংশ শতাব্দীর সবচে খ্যাতিমান বিজ্ঞানী অ্যালবার্ট আইনস্টাইন চাননি তার মৃত শরীর নিয়ে কোনো গবেষণা হোক। তাঁকে পুজা করা হোক। তাই পরিবারকে ভালোভাবে বলে গিয়েছিলেন: কিভাবে তাকে পোড়ানো হবে। বলে গিয়েছিলেন: তার দেহভস্ম যেন উড়িয়ে দেওয়া হয় কোনো গোপন জায়গায়। কিন্তু তার সেই ইচ্ছা পূরণ হয়নি। মৃত্যুর পর, ময়নাতদন্তের সময় চুরি হয়ে যায় তার মস্তিস্ক। কিভাবে? কে করেছিল এই চুরি? আজ আমরা সেই গল্পই শুনবো।

আলবার্ট আইনস্টাইন আমেরিকার নিউ জার্সিতে মারা যান ১৯৫৫ সালের ১৮ই এপ্রিল। ময়নাতদন্তের সময় প্যাথোলজিস্ট থমাস হার্ভে করেছিলেন আইন্সটাইনের মস্তিস্ক চুরির কাজটি! সবার অলক্ষ্যে তিনি সেটি লুকিয়ে ফেলেছিলেন। তার আশা ছিল: মৃত এই জিনিয়াসের মস্তিস্ক নিয়ে গবেষণা করে মেধার রহস্য বের করার।

মস্তিস্কটির ওজন ছিলো ১২৩০ গ্রাম। কিছুদিন পর হার্ভে সেটি নিয়ে চলে আসেন ইউনিভার্সিটি অফ পেনসেলভানিয়ায়। সেখানে তিনি মস্তিস্কটিকে ২৪০ টুকরায় ভাগ করেন। কিছু টুকরো রেখে দেন নিজের কাছে। বাকিগুলো পাঠান বিভিন্ন গবেষকের কাছে। একই সঙ্গে তিনি বিভিন্ন অ্যাঙ্গেল থেকে অসংখ্য ছবি তোলেন আইন্সটাইনের মস্তিস্কের। এই সব কিছুই হার্ভে করছিলেন আইন্সটাইনের পরিবারের অনুমতি ছাড়া।

হার্ভে মগজের টুকরোগুলো সংরক্ষণ করেছিলেন দুইটি জারে। এবং জারগুলো লুকিয়ে রেখেছিলেন বাড়ির বেসমেন্টে। বিষয়টি প্রথম জনসমক্ষে আসে ১৯৭৮ সালে। সাংবাদিক স্টিভেন লেভি নিউ জার্সি মান্থলি পত্রিকায় একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। শিরোনাম দেন: “ আই ফাউন্ড আইনস্টাইন’স ব্রেইন।” সেটি ছিলো হার্ভের সাক্ষাৎকার ভিত্তিক প্রতিবেদন।

এরপরে থমাস হার্ভে যেখানেই গেছেন, সঙ্গে নিয়ে গেছেন আইনস্টাইনের সেই মস্তিস্ক। ১৯৮৫ সালে এটি নিয়ে একটি গবেষণাপত্রও প্রকাশ করেন তিনি। সেখানে দাবী করা হয়: আইন্সটাইনের মস্তিস্কের গঠন সাধারণ নয়। এখানে অস্বাভাবিক ধরনের দুই রকম সেল, নিওরন এবং গ্লিয়া আছে। বলাই বাহুল্য, দাবিটি বিতর্কিত। অন্য বিজ্ঞানীরা প্রমাণ করেছেন যে: দাবিগুলো ভুয়া।

তবে হার্ভে তাতে দমে যাওয়ার পাত্র নন। ১৯৯৯ সালে প্রকাশিত আরেক গবেষণাপত্রে তিনি দাবী করেন: আইন্সটাইনের মগজের একপাশে অস্বাভাবিক ভাঁজ আছে। মস্তিস্কের এই অংশ মুলত গাণিতিক ব্যাপারের সমাধান করে। মজার ব্যাপার হলো: আইস্টাইন বেঁচে থাকতে গণিতে দুর্বল ছিলেন।

২০০৭ সালে থমাস হার্ভে মারা যাওয়ার পর তার উত্তরাধিকারীরা আইনস্টাইনের মস্তিস্কটি ন্যাশনাল মিউজিয়াম অফ হেলথ আন্ড মেডিসিনকে দিয়ে দিয়েছেন। সেই সাথে মস্তিস্কের আরো এমন ১৪টি ছবি দিয়েছেন, যা আগে কোথাও প্রকাশিত হয়নি। আইনস্টাইনের মস্তিস্কের আরও ৪৬টি অংশ সংরক্ষিত আছে ফিলাডেলফিয়ার মুটার মিউজিয়ামে।

বিখ্যাত ব্যক্তিদের এমন আরো মজার মজার ঘটনা জানতে সাবস্ক্রাইব করুন বাংলা ডায়েরি।

Bednet steunen 2023