free hit counter
খেলা

অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড মহারণে জল ঢেলে দিতে পারে বৃষ্টি

গত বছর ঠিক অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড ফাইনাল দিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর্দা নেমেছিল। কিউইদের উড়িয়ে দিয়ে প্রথমবার শিরোপা উঁচিয়ে ধরে অজি দল। সেই দুটি দলের মহারণ দিয়ে এবার পর্দা উঠছে মূল পর্বের তথা সুপার টুয়েলভের (ম্যাচ শুরু বাংলাদেশ সময় দুপুর ১টায়)। সিডনিতে মহারণের উত্তাপ যখন সন্নিকটে, ঠিক এমন ম্যাচে চোখ রাঙাচ্ছে বৃষ্টি।

প্রশান্ত মহাসাগরের আবহাওয়ার একটি বিশেষ অবস্থাকে বলে লা নিনা। প্রতিকূল এই প্রাকৃতিক অবস্থাই বিরাজ করছে সেখানে। আবহাওয়ার পূর্বাভাস বলছে, সিডনির ম্যাচ ডেতে ৯০ শতাংশ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। অর্থাৎ লা নিনার প্রভাব ম্যাচটায় বিঘ্ন ঘটাতে পারে। মাসজুড়েই এমন বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। যে কারণে নিউজিল্যান্ড-ভারতের ওয়ার্ম ম্যাচটাও বৃষ্টিতে ভেসে গেছে।

কিউইদের জন্য দুর্ভাগ্য হলো, বৃষ্টির পাশাপাশি আরেকটি প্রতিপক্ষের বিপক্ষেও তাদের লড়তে হবে- ইনজুরি। গত বিশ্বকাপের নায়ক ড্যারিল মিচেলকে পাওয়া যাবে না সুপার টুয়েলভের উদ্বোধনী ম্যাচে। নেতিবাচক সব খবরের ভিড়ে পরিসংখ্যানও তাদের আশা দিতে পারছে না। ২০১১ সালের পর থেকে অস্ট্রেলিয়ায় তাদের কোনও ফরম্যাটে জয় নেই। তবে অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন কিউইদের ‘অজি জুজু’ নিয়ে মোটেও ভাবছেন না, ‘আমরা আসলে এসব নিয়ে খুব বেশি ভাবিনি। সেসব লড়াইয়ের বেশিরভাগই ছিল অস্ট্রেলিয়ার শক্তিশালী দলের বিপক্ষে। আমাদের লক্ষ্য হলো মূল বেসিকে টিকে থাকা।’

এই পর্বে কোনও রিজার্ভ ডে নেই। বৃষ্টি বিঘ্ন ঘটালেও ফলাফল বের করতে কমপক্ষে ৫ ওভার খেলা জরুরি। খেলা না হলে পরে পয়েন্ট ভাগাভাগি নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হবে। তবে বৃষ্টির সম্ভাবনায় বিকল্প নিয়েও প্রস্তুত ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ বলেছেন, ‘আসলে এসব পরিকল্পনার ক্ষেত্রে নমনীয় হতে হয়। তারপর আমাদের এটাও দেখতে হবে বৃষ্টি কতটা প্রভাব রাখবে। কয়েক ওভার কমলে সেটা হয়তো প্রভাব ফেলবে না। তবে ৫ ওভার কমে গেলে সেটা অনেক বড় প্রভাব ফেলবে।’ অর্থাৎ পরিস্থিতি বুঝেই একাদশ সাজানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন ফিঞ্চ।

Bednet steunen 2023