free hit counter
খেলা

অপেক্ষা বাড়ালো আবাহনী-প্রাইম ব্যাংক

শিরোপার স্বপ্ন আগেই শেষ হয়ে গেছে আবাহনী লিমিটেড ও প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের। তবে ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগের ট্রফির দৌড়ে থাকা শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জের অপেক্ষা দীর্ঘায়িত করার কাজটা ভালোভাবেই সেরেছে আবাহনী, প্রাইম ব্যাংক।

গতকাল মিরপুর স্টেডিয়ামে লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জকে ৮১ রানে পরাজিত করেছে আবাহনী। ১৩ ম্যাচে মাশরাফি-সাকিবের রূপগঞ্জের সংগ্রহ ১৮ পয়েন্ট। বিকেএসপির ৪ নম্বর মাঠে শেখ জামালকে ৮ উইকেটে হারিয়েছে প্রাইম ব্যাংক। ১৩ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে এখনো শীর্ষে আছে শেখ জামাল।

আগামীকাল সুপার লিগের চতুর্থ রাউন্ডে রূপগঞ্জ হারের পাশাপাশি শেখ জামাল জিতলেই চ্যাম্পিয়ন হয়ে যাবে। দুই দল হারলেও ইমরুল কায়েসের দল শিরোপা জিতবে। আর রূপগঞ্জ জিতলে এবং শেখ জামাল হেরে গেলে ট্রফির ফয়সালা গড়াবে শেষ রাউন্ডে।

শিরোপার দুয়ারে থাকা শেখ জামালকে বড় স্কোর পেতে দেয়নি প্রাইম ব্যাংক। ৮ উইকেটে ২৩২ রান তুলেছিল ক্লাবটি। নুরুল হাসান সোহান সর্বোচ্চ ৭১, পারভেজ রাসুল ৩৭, মিরাজ ৪৭ রান করেন। প্রাইম ব্যাংকের তাইজুল ৩টি, রাকিবুল ২টি করে উইকেট নেন। এদিন ক্লাবটির হয়ে খেলেন শারিফুলও। জবাবে ৪০.২ ওভারে ২ উইকেটে ২৩৪ রান তুলে জয় নিশ্চিত করে প্রাইম ব্যাংক। তামিম ৯০, বিজয় ৫২, শাহাদাত দিপু অপরাজিত ৫২, মিঠুন অপরাজিত ৩১ রান করেন। তামিম ম্যাচ সেরার পুরস্কার পান।



মিরপুরে মাশরাফি-সাকিবদের বোলিং মাড়িয়ে আবাহনী ৭ উইকেটে ২৭৯ রান করেছিল। শান্ত ৮৬, আফিফ ৬২, সাইফউদ্দিন অপরাজিত ৩০, মোসাদ্দেক ২৮ রান করেন। রূপগঞ্জের সাকিব ৩টি, আল-আমিন হোসেন ২টি উইকেট পান। পরে ৪৪.৫ ওভারে ১৯৮ রানে অলআউট হয় রূপগঞ্জ। রকিবুল ২৭, সাব্বির ৩৮, চিরাগ জানি ৪৮, তানবির অপরাজিত ৩৬, মুক্তার আলী ২২ রান করেন। ৩ রান করে আউট হন সাকিব। আবাহনীর মোসাদ্দেক ৪টি, তানবির ৩টি উইকেট পান। অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে ম্যাচ সেরা হন আবাহনীর অধিনায়ক মোসাদ্দেক।

বিকেএসপির ৩ নম্বর মাঠে লিস্ট-এ ক্রিকেটে ফজলে রাব্বির ৯ম সেঞ্চুরিতে রূপগঞ্জ টাইগার্স ৮৪ রানে হারিয়েছে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সকে। রূপগঞ্জ টাইগার্স ৪ উইকেটে ৩১৪ রান তুলেছিল। ফজলে রাব্বি ১০৮ বলে ১০৪ রান (৫ চার, ৪ ছয়) করেন। ইমরানুজ্জামান ৭৩, মার্শাল ৫৩, আরিফুল অপরাজিত ৪১ রান করেন। জবাবে ৪৩.৩ ওভারে ২৩০ রানে অলআউট হয় গাজী ক্রিকেটার্স। ফজলে রাব্বি ম্যাচ সেরা হন।

এদিকে, ফতুল্লায় রেলিগেশন লিগের শেষ ম্যাচে ব্রাদার্স ইউনিয়ন-সিটি ক্লাবের লড়াই ভেজা আউটফিল্ডের কারণে পরিত্যক্ত হয়। খেলাঘর ও প্রাইম দোলেশ্বরের অবনমন আগেই নিশ্চিত হওয়ায় ম্যাচটি ছিল নিছক আনুষ্ঠানিকতার। সকাল ১১টায় ম্যাচ পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। প্রিমিয়ারে টিকে গেল ব্রাদার্স, সিটি ক্লাব।

Source link