Image default
স্বাস্থ্য

ব্যাক পেইন সারাবেন যে ভাবে

কমবেশি সবার ব্যাক পেইন অর্থাৎ কোমরের বা মাজার ব্যথা হতে পারে। হঠাৎ ব্যাক পেইন হলে অনেকে মনে করেন কিডনির সমস্যা। বার্ধক্যের কারণে এই ব্যথা বাড়তে পারে। একটানা চেয়ারে বসে থাকলে বা দূরে কোথাও ঘুরতে গেলে এটি হতে পারে। শুধু ওষুধ খেলেই ব্যথা ভালো হবে এমন নয়। তবে এই সমস্যা দীর্ঘদিনের হলে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

ব্যাক পেইন কেন হয়?

দেখা যায়। মেরুদণ্ডের পেশি, স্নায়ু, হাড়ের জোড়া যদি সঠিক অবস্থানে সঠিক কাজ না করতে পারে, তাহলে ব্যথা সৃষ্টি হয়।
আসুন জেনে নিই কোমর ব্যথা দূর করতে কী করবেন-

১. ব্যাক পেইন হলে পিঠ সোজা হয়ে বাসার অভ্যাস করুন। পিঠ সোজা করে বসতে ও চলাফেরা করতে হবে।

২. দুই পায়ের নিচে বালিশ দিয়ে পা উঁচু রেখে ঘুমাতে হবে।

৩. চেয়ারে বসে দীর্ঘক্ষণ কাজ করার সময় বসবার জায়গাটা যেন উঁচু থাকে, সেদিকে লক্ষ্য রাখুন।

৪. ভারী পানির বালতি বা ব্যাগ বহন করলে ব্যাক পেইন হতে পারে। তাই ভারী কিছু বহন করা যাবে না।

৫. বাইসাইকেল ও মোটরসাইকেল চালানোর কারণে ব্যাক পেইন হতে পারে। এক্ষেত্রে বাইসাইকেল চালানো পরিহার করতে হবে।

৬. ব্যাক পেইন হলে বিশ্রাম নিতে হবে। ব্যাক পেইন ভালো হওয়ার ক্ষেত্রে বিশ্রামের বিকল্প নেই।

৭. কোমর ব্যথা হলে সেঁক ও বরফ দেয়া যেতে পারে। কখনও কখনও সেঁক দিলে অথবা বরফ দিলে উপকার পেতে পারেন।

৮. ব্যাক পেইন সারাতে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যায়াম করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনো ব্যথানাশক ওষুধ খাবেন না।

Related posts

প্রাপ্তবয়স্ক রোগীদের জন্য ‘মেজর স্টেপ ফরোয়ার্ড’ কারণ নতুন ব্লাড ক্যান্সারের ওষুধ FDA অনুমোদন পেয়েছে

News Desk

নারীর জীবন রক্ষা পায় যখন ফুল-বডি স্ক্যান কোনো লক্ষণ ছাড়াই মারাত্মক অবস্থা শনাক্ত করে

News Desk

নার্সরা ওহাইও মহিলাকে অনুপ্রাণিত করে যারা ক্যান্সারকে পরাজিত করে তাদের একজন হতে: ‘আমাদের তার মতো লোক দরকার’

News Desk

Leave a Comment