দুই হাজার মানুষের ওপর চালানো ওই জরিপে দেখা গেছে, তাদের ৭৯ শতাংশেরই ১৬ কেজির মতো ওজন বেড়েছে সম্পর্ক শুরুর পর। এই ওজনটাকে বলা হচ্ছে ‘লাভ ওয়েইট’ বা ‘ভালোবাসার ওজন’। সম্পর্কের প্রথম বছরেই এই ওজন বাড়তে দেখা যায়। পুরুষের ওজন এ ক্ষেত্রে বেশি বাড়ে। ৬৯ শতাংশ পুরুষের এবং ৪৫ শতাংশ নারীর এভাবে ওজন বাড়তে পারে। কিন্তু এ রকম ওজন বাড়ার কারণ হলো প্রেম করার সময়ে বাইরে গিয়ে খাওয়া-দাওয়া টা বেশি হয় তাই।

অনেকেই দাবি করেন, প্রেমের পর তাদের মনে হয়, এখন তো ভালোবাসার মানুষ বা জীবনসঙ্গী পেয়ে গেছেন, এখন ওজন কমানোর কষ্ট না করলেও চলবে। সাধারণত সম্পর্ক দেড় বছরে গড়ালে এমন মানসিকতা দেখা দেয়। বিয়ের ক্ষেত্রেও একই ব্যাপার দেখা যায়। ৫৭ শতাংশ মানুষ জানায়, বিয়ের প্রথম বছরে গড়ে ৭.৭ কেজি ওজন বাড়ে তাদের। এক্ষেত্রে নারীর তুলনায় পুরুষের পরিবর্তন বেশি । বেশিরভাগ ওজন বাড়ে বিয়ের পর পাঁচ বছর হলে। এ সময়ে সাধারণত বেশিরভাগ দম্পতি বাচ্চা নেন এবং শরীরের প্রতি তেমন মনোযোগ দেন না। বিয়ের ক্ষেত্রে অনেক ভারী ভারী খাবার খাওয়া হয় কিছুদিন। বিয়ের পর পর দাওয়াত খাওয়ার পরিমাণটাও বাড়ে। এর ফলে ওজন বাড়তে থাকে।

যে শীর্ষ ৬টি কারণে বিয়ের পর ছেলেদের পরিবর্তন হয় :

১) সংসার শুরু করা

২) রান্নার সময় না পেয়ে বা বেড়াতে গিয়ে বাইরের খাবার খাওয়া

৩) সুখে থাকার কারণে ওজন নিয়ে চিন্তা না করা

৪) কর্মক্ষেত্রে স্ট্রেস

৫) ঘুমের অভাব

৬) সম্পর্কে টানাপোড়েন

Related posts

নকল N95 মুখোশের বিক্রেতা গ্রাহকদের $1.1 মিলিয়ন ফেরত দেবে

News Desk

ডিমেনশিয়া রোগীরা যারা ওপিওড গ্রহণ করে ‘উদ্বেগজনক’ মৃত্যুর ঝুঁকির সম্মুখীন হয়, নতুন গবেষণায় দেখা গেছে

News Desk

দেশব্যাপী বায়োমেট্রিক বন্দুকের সেফের কথা স্মরণ করে যা বাচ্চাদের বাইরে রাখে না

News Desk

Leave a Comment