free hit counter
রূপচর্চা

শীতকালের সাজগোজ

দাপুটে উপস্থিতির জানান দিচ্ছে শীত। বদলে যাচ্ছে মেকআপও। ঋতুবদলে পরিবর্তন চলে আসে মেকআপেও । এখন দিন আর রাতে হালকা কিংবা ভারী— আধিপত্য খাটাবে দুই টোনের সাজই। এ বছর শীত মেকআপে থাকবে কিছু চমকও। জমকালো আর উজ্জ্বল রং আসবে, তাই বলে হারিয়ে যাবে না মুখের সতেজ ভাব। শীতে সাজগোজ ও মেকআপের ক্ষেত্রে যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন –

লিপস্টিক আর গয়নায় অনন্য

মানানসই লিপস্টিক

গত দুই বছরের মতো ম্যাট লিপস্টিক এবারও নিজের জোরালো স্থায়িত্ব বজায় রাখবে। তবে চকচকে ভাব আনতে লিপস্টিকে যোগ হবে গ্লসি টোন।

সেটাও এমন হবে যেন দীর্ঘ সময় ঠোঁটে থেকে যায়। খুব গাঢ় নয়, বরং গাঢ় রংগুলোর হালকা শেড দেখা যাবে। হালকা রংগুলো সাধারণত গরমের সময় দেখা যায় বেশি। শীতেও এবার ঠোঁটের সঙ্গী হয়ে থাকবে এগুলো।

গয়না হালকা ও ভারী

ব্যক্তির রুচি ও পছন্দ এবং পোশাকের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে বেছে নেওয়া হবে গয়না—জানালেন শোভন মেকওভারের রূপ বিশেষজ্ঞ শোভন সাহা। সোনা, রুপা, কুন্দন, মেটাল, অক্সিডাইজ, মুক্তা, কাপড়, কড়ি, সুতা, মাটি—চলবে সব ধরনের গয়নাই।

গাউন-কুর্তির জয়জয়কার

গাউনেরই সময়

আসলে ঠিক গাউন নয়—কুর্তি, সিঙ্গল কামিজ, কাফতান—এমন ওয়ানপিসের চাহিদা এখন ওপরে। ঝামেলা কম, সময় বাঁচায়। বাহুল্য নেই বলে এমন পোশাকেই স্বচ্ছন্দ এখন বেশির ভাগ মেয়ের। আর শীতকাল উৎসবের বলে গাউনের রেটিং এবার ওপরে। এই পোশাক উত্সবের আমেজ ধরে রাখে ষোলো আনা। নজর কাড়তে গলার নকশায় থাকবে ভিন্নতা।

কনট্যুর

গাল চাপানোর জন্য মেকআপে কনট্যুর করা হয়। মেকআপ দিয়ে মুখের মেদ কমানোই হলো এ পদ্ধতি। তবে সেই পদ্ধতিতে এখন এসেছে নতুনত্ব। কনট্যুর করা হলেও তা এখন আর বোঝা যাবে না, মানে থাকবে মোলায়েম ভাব।

গাউন কিংবা ওয়ানপিসে চুলে আসবে পশ্চিমা রীতির ছোঁয়া।

পোশাকে উজ্জ্বল রং

জমকালো, উজ্জ্বল রঙের পোশাক

পোশাকে উজ্জ্বল রঙের সরব উপস্থিতি থাকবে। ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা বাতাসে রংই এনে দেবে উষ্ণতা। পোশাকের ম্যাটেরিয়ালে ভেলভেট, সিল্ক আর কাজে ভারী জারদৌসি বা হাতের কাজের ভরাট বুনন দেবে অভিজাত লুক।

লিপস্টিকে আর আইশ্যাডোতে দেখা যাবে হালকা আর উজ্জ্বল দুই ধরনের শেডই। নিয়ন রংগুলো ব্যবহার করতে হবে এমনভাবে, যেন চেহারার সতেজতা হারিয়ে না যায়।

চুল, এলোমেলোয় গোছানো

চুলে দেখা যাবে দুই ধরনের বাহার। টেনে বাঁধা, সযতন খোঁপা কিংবা একেবারে অগোছালো হাতখোঁপা। ছেড়ে দেওয়া চুলে চিরুনির আলতো টান থাকতে পারে।

সোজা ও কোঁকড়ানো চুলকে সাজানো হবে দুই ভাবেই। তবে খোলা রাখার প্রবণতা প্রাধান্য পাবে। সেটা ছেড়ে কিংবা ব্লো করে বা ওপরের দিকটা ন্যাচারাল রেখে নিচে করে নেওয়া হবে কার্লি।

স্নিগ্ধ আর সতেজ

গোলাপি আভা, ডাগর চোখ

গোলাপি বা পিচ মানে বাঙ্গি রঙের আভা দেখা যাবে গালে। যেন শীতের বাতাসে উষ্ণতার ছোঁয়া।

রেড বিউটি স্যালনের রূপ বিশেষজ্ঞ আফরোজা পারভীন এর সঙ্গে জুড়ে দিলেন চোখের প্রতি আলাদা গুরুত্বের কথাও। ন্যুড টোনের মুখশ্রীতে এক জোড়া ডাগর চোখ যেন মুখের ওপর রাজত্বই করবে। ভ্রুর সযতন টানের নিচে ডাগর দুটি চোখে আইলাইনার, মাশকারার উপস্থিতি লুকের আভিজাত্য বজায় রাখবে শতভাগ।

হালকা বেইজ

আফরোজা পারভীন জানালেন, মেকআপের বেইজ একদমই হালকা কিন্তু স্থায়ী—এমনই ভালো। যত হালকা থাকবে, দেখতে ততই স্নিগ্ধ লাগবে।