free hit counter
রূপচর্চা

ব্যথা ছাড়া হাই হিল পরার কৌশল সমূহ

হিল দারুণ। হিল সব সময় আপনাকে ইনস্ট্যান্ট সুন্দর ও গ্ল্যামারাস করে তুলবে। হাই হিলের প্রতি ভালোবাসা কমবেশি সব মেয়েরই আছে। হাই হিল একদিকে ফ্যাশনেবল আবার সেই সঙ্গে আভিজাত্যপূর্ণ । ফ্যাশন সচেতন সব নারীর হাই হিলের কালেকশন থাকে। তবে পায়ে ব্যথার কথা ভাবলেই হাই হিলের অনেক অসুবিধা সামনে চলে আসে। তাই বলে কি হাই হিল পরা বাদ দেওয়া যাবে? না, কিছু বিষয় খেয়াল রাখলে ব্যথাহীনভাবে হাই হিল পরা যায়।

হাই হিল সামনে নিচু ও পেছনে উঁচু হওয়ায় শরীরের সব ভার পায়ের পেছনেই পড়ে। আর এ থেকে ব্যথা হয় পায়ে। তবে কয়েকটি কৌশলে ব্যথা কমানো সম্ভব।

পা ভালোভাবে ময়েশ্চারাইজ করা

হাই হিল পরার আগে পায়ে ভালোভাবে ময়েশ্চারাইজ ব্যবহার করলে ব্যথা বা ফোসকা পড়ার আশঙ্কা থাকে না।

মাপ অনুযায়ী জুতা পরা

পায়ের জুতার সাইজ সঠিক হওয়া অনেক গুরুত্বপূর্ণ। জুতা কেনার আগে দোকানের সাহায্য নিন আপনার পায়ের সঠিক সাইজ বলতে। যদি বড় হওয়ার পরেও পায়ের সাইজ বড় হতে থাকে, এ জন্য দুই বছর পর পর পায়ের সাইজ ভালোভাবে চেক করে নিন।

পায়ের আকারের ওপর গুরুত্ব দেওয়া

আমাদের কারো পা থাকে চিকন আর কারো থাকে প্রশস্ত। কারো পায়ের আঙুল হয় ছোট আবার কারো হয় বড়। আপনার পা যদি প্রশস্ত হয়, তবে চারদিক বন্ধ করা জুতা পরা থেকে বিরত ‍থাকুন। সামনে খোলা বা পেছনে খোলা থাকে এমন জুতা পরুন। কারণ সামনে-পেছনে ঢাকা জুতা পরলে আপনার অস্বস্তি লাগা শুরু হবে এবং সে থেকে হবে পায়ে ব্যথা।

ব্লক হিল

পয়েন্টেড হিলের তুলনায় ব্লক হিল অনেক আরামদায়ক। যদিও পেনসিল হিলের কোনো তুলনা হয় না। তবে আরামদায়ক জুতা পরতে চাইলে স্টাইলিশ ব্লক হিল জুতাও খুঁজে পাবেন, যা দেখতেও নান্দনিক লাগবে, সেই সঙ্গে পরতেও আরাম।

জুতার মোটা সোল

যেসব জুতার সোল পাতলা, সেগুলো আপনার পায়ে ব্যথা সৃষ্টি করবে। চেষ্টা করুন এমন দেখে জুতা কিনতে। একটানা হিল না পরে একটু বিরতি নিয়ে পরুন। এতে করে পায়ে ব্যথা হবে না।

সাপোর্টসহ জুতা পরা

হাই হিল পরে পায়ের গোড়ালিতে টেপ লাগিয়ে নিতে পারেন। এতে করে আপনার ব্যথা হবে না আবার অনেক আরাম বোধ করবেন।

সতর্কতা

১. জুতা খোলার পর সব সময় চেষ্টা করুন পা নাড়াচাড়া করতে।

২. পায়ের গোড়ালিতে আইস প্যাক লাগাতে পারেন।

৩. দিনে একবার ফুট ম্যাসাজ করতে পারলে ভালো।