free hit counter
আন্তর্জাতিক

হাইপারসনিক অস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

ছবি: সংগৃহীত

হাইপারসনিক রকেটের সফল পরীক্ষা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনী। ভার্জিনিয়ায় সমুদ্রতীরবর্তী লঞ্চ প্যাড থেকে বুধবার (২৬ অক্টোবর) এই পরীক্ষা চালানো হয়। পেন্টাগন থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, নতুন অস্ত্রের উন্নয়নের জন্য চালানো এই পরীক্ষা সফল হয়েছে। এবারের হাইপারসনিক অস্ত্র যোগাযোগ ও নেভিগেশন সরঞ্জামের পাশাপাশি উন্নত উপকরণের মূল্যায়ন করেছে। খবর জেরুজালেম পোস্টের।

খবরে জানানো হয়, এটি শব্দের পাঁচ গুণেরও বেশি গতিতে বা ঘণ্টায় প্রায় তিন হাজার ৮৫৩ মাইল গতিতে লক্ষ্যে পৌঁছাতে সক্ষম হয়। যুক্তরাষ্ট্র ও তাদের বৈশ্বিক প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ রাশিয়া ও চীন দ্রুত গতিতে হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্রের দিকে ঝুঁকছে। নতুন প্রজন্মের এই অস্ত্র প্রথাগত সব অস্ত্রকে খেলনায় পরিণত করেছে। এই প্রযুক্তিতে সবথেকে এগিয়ে আছে চীন। রাশিয়াও যুক্তরাষ্ট্রের তুলনায় দ্রুত মিসাইল তৈরি করেছে। হাইপারসনিক অস্ত্রের সক্ষমতা বাড়াতে এটা যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিতীয় পরীক্ষা।

এ অস্ত্রের ক্ষেত্রে ভূমি ও সাগরকে বেশি গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। এর আগে ২০২১ সালের অক্টোবরে প্রথম হাইপারসনিক অস্ত্রের পরীক্ষা চালায় যুক্তরাষ্ট্র।
এবারের পরীক্ষায় পাঁচগুণ গতিতে ছুটে যাওয়ার সময় তাপ সহ্য করার ক্ষমতা মূল্যায়ন করা হয়েছে বলে জানিয়েছে মার্কিন নৌবাহিনী। এক বিবৃতিতে নৌবাহিনী জানায়, সর্বশেষ রাউন্ডের পরীক্ষা শেষ করতে চলতি সপ্তাহের শেষের দিকে আরও একটি হাইপারসনিক রকেট উৎক্ষেপণ করা হবে। যুক্তরাষ্ট্র ক্রমশ হাইপারসনিক প্রযুক্তিতে প্রতিদ্বন্দ্বীদের সমকক্ষ হতে চাইছে। যুক্তরাষ্ট্রের লকহিড মার্টিন কর্প এবং রায়থিওন টেকনোলজিস কর্পের মতো কোম্পানিগুলো হাইপারসনিক অস্ত্র সক্ষমতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে।

Source link

Bednet steunen 2023