free hit counter
আন্তর্জাতিক

যুক্তরাজ্যের শীর্ষ সাংবাদিকদের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিলো রাশিয়া

ইউক্রেন নিয়ে ‘পক্ষপাতমূলক’ সংবাদ প্রকাশের অভিযোগে যুক্তরাজ্যের বেশ কয়েকজন শীর্ষ সাংবাদিককে নিষিদ্ধ করেছে রাশিয়া। বিবিসি জানিয়েছে, রুশ সরকারি কর্মকর্তাদের ওপর যুক্তরাজ্য সরকারের দেওয়া নিষেধাজ্ঞার জবাব দিতে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

নিষেধাজ্ঞার তালিকায় রয়েছেন বিবিসির ক্লাইভ মাইরি, ওরলা গুয়েরিন ও নিক বেক।  তারা প্রত্যেকে ইউক্রেন পরিস্থিতি নিয়ে প্রতিবেদন তৈরি করেছেন।

এছাড়া স্কাই টিভি, গার্ডিয়ান, চ্যানেল ৪ এবং আইটিভির সাংবাদিকরাও নিষেধাজ্ঞার তালিকায় আছেন। এর আগে যুক্তরাজ্যের কয়েক শ এমপিকে নিষিদ্ধ করেছিল রাশিয়া।. . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . . .

 

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, নিষেধাজ্ঞা দেওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ২৯জন সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে জড়িত এবং ২০ জন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে কাজ করেন।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ‘তালিকায় অন্তর্ভুক্ত ব্রিটিশ সাংবাদিকরা ইউক্রেন যুদ্ধ, ডনবাসের ঘটনা এবং রাশিয়া সম্পর্কে ইচ্ছাকৃতভাবে মিথ্যা ও একতরফা তথ্য প্রচারে জড়িত।  তাদের পক্ষপাতমূলক আচরণের কারণে  ব্রিটিশ সমাজে রাশিয়া সম্পর্কে বাঁজে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। ’

তালিকায় থাকা অন্য হাই-প্রোফাইল সাংবাদিকদের মধ্যে রয়েছেন দ্য টাইমসের সম্পাদক জন উইথেরো, টেলিগ্রাফের ক্রিস ইভান্স, গার্ডিয়ানের ক্যাথারিন ভিনার এবং ডেইলি মেইলের টেড ভেরিটি।

নিষেধাজ্ঞায় পড়েছেন গার্ডিয়ানের সংবাদদাতা শন ওয়াকার এবং লুক হার্ডিং।  স্কাই নিউজের উপস্থাপক সোফি রিজ এবং চ্যানেল ৪ নিউজের ক্যাথি নিউম্যান, ডেইলি টেলিগ্রাফের কলামিস্ট কন কফলিন এবং এফটি-এর গিডিয়ন রাচম্যানের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

তালিকায় থাকা বিবিসির অন্য সংবাদ কর্মীর হলেন কূটনৈতিক সংবাদদাতা পল অ্যাডামস।  স্কাই নিউজের প্রধান সংবাদদাতা স্টুয়ার্ট রামসেকেও নিষিদ্ধ করা হয়েছে। রামসে কিয়েভের বাইরে থেকে যুদ্ধের রিপোর্টিং করার সময় হামলায় আহত হন।