free hit counter
আন্তর্জাতিক

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রীর দৌঁড়ে কেন পরাজিত হলেন সুনাক

ঋষি সুনাক। ফাইল ছবি

বরিস জনসনের পদত্যাগের পর কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানেই সুনাক একটি ভিডিও প্রকাশ করে তুমুল আলোচনার জন্ম দিয়েছিলেন। তার ভিডিও’র ক্যাপশনে ছিল ‘ঋষির জন্য প্রস্তুত হও’।

এটি প্রাথমিকভাবে সুনাকের জনপ্রিয়তা বুদ্ধির জন্য সুবিধা দিয়েছিল। কিন্তু এই ভিডিও’র কারণে যুক্তরাজ্যের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তার আস্থার সংকট সৃষ্টি হয়েছিল। কারণ, বরিস জনসনকে সরানোর পেছনের মূল কারিগর যে সুনাকই ছিলেন সেটা সবাই কম বেশি জানতো।

প্রথম দিকে নিজ দলের ভেতর সুনাকের প্রতি বেশি সমর্থন থাকলেও সাজিদ জাভিদ, নাদিম জাহাওয়ি ও মরডন্টের সমর্থন সরিয়ে নেয়ার পর দুর্বল হয়ে পড়েন সুনাক। এছাড়াও অন্য এমপিরাও সুনাকের প্রতি সমর্থন তুলে নেন। অন্যদিকে, লিজের প্রতি সমর্থন বাড়তেই থাকে।

বরিস জনসনের পদত্যাগের পরই সুনাকের জনপ্রিয়তা বেড়ে যায়। তবে স্ত্রীর অঢেল সম্পদ নিয়ে বিতর্ক, বিলাসবহুল জীবনযাপন, অর্থ বিভাগের অবস্থা, করনীতিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সুনাকের ভাবমূর্তি নিয়ে বিতর্কও চলে।

ইউগভের জরিপ বলছে, করনীতি ও অর্থ বিভাগের অবস্থা, আস্থার অভাব ও জনসাধারণের ধরাছোঁয়ার বাইরে থাকার কারণে সুনাকের প্রতি অনেকের সমর্থন কমেছে।

দ্য গার্ডিয়ানে লেখা এক সম্পাদকীয়তে বলা হয়েছে, যদিও দীর্ঘদিন ধরে সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রী হিসেবে সুনাকের নাম শোনা যাচ্ছিল, তবু তার প্রতিদ্বন্দ্বী লিজ ট্রাস ছিল অনেক বেশি শক্তিশালী। থ্যাচারকে ক্ষমতাচ্যুত করতে তার ভূমিকা ছিল।

হঠাৎ কী কারণে জনপ্রিয়তা কমে গেল সুনাকের

সুনাকের একটি ভিডিও হঠাৎ সামনে আসে। তাতে সুনাক অনুন্নত শহরাঞ্চলের বরাদ্দ করা অর্থ নেওয়ার কথা স্বীকার করেন। বঞ্চিত নগর এলাকা থেকে কেন্ট কমিউটার বেল্টে অর্থ স্থানান্তর করে দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে দেওয়া সুনাকের বক্তব্যে বিতর্ক সৃষ্টি হয়। যুক্তরাজ্য সরকার দক্ষিণ-পূর্ব ব্রিটেনের বাইরে সম্পদের সুষম বণ্টনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। ঋষি সুনাকের এ ধরনের পদক্ষেপে সেই প্রতিশ্রুতি নিয়ে কনজারভেটিভ পার্টির সদস্যদের মনে অনাস্থা তৈরি হয়।

সুনাকের জনপ্রিয়তায় আরও ভাটা পড়ে সানডে টাইমস রিট লিস্ট ম্যাগাজিনে খবর প্রকাশের পর। সেখানে ধনীদের তালিকা অনুসারে সুনাকের স্ত্রী অক্ষতা মূর্তির সম্পদ ব্রিটিশ রানি এলিজাবেথের চেয়ে বেশি বলে প্রকাশিত হয়। তার সম্পদের পরিমাণ ৪৩ কোটি ডলার। ওয়েস্টমিনস্টারের প্রথম কোটিপতি দম্পতি হিসেবে আসে তাদের নাম। লেবার পার্টি ব্যবসার জন্য সুনাককে ঋণ নেওয়ার প্রক্রিয়ায় আরও স্বচ্ছতার দাবি তোলে।

গার্ডিয়ান বলছে, এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বাধ্য হয়েছিলেন সুনাক। ভারতের বহুজাতিক তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ইনফোসিসের ৬৯ কোটি মূল্যের শূন্য দশমিক ৯৩ শতাংশ শেয়ারের মালিক সুনাকের স্ত্রী অক্ষতা মূর্তি।

ওই পত্রিকার খবরে আরও বলা হয়, অক্ষতা ভারতীয় নাগরিক হওয়ায় যুক্তরাজ্যের বাসিন্দা হিসেবে কর দিত বাধ্য ছিলেন না। এ কারণে তিনি ইনফোসিসে শেয়ারের লাভ থেকে প্রায় দুই কোটি পাউন্ড কর বাঁচান। সমালোচকেরা বলেছেন, সুনাকের স্ত্রী কর ফাঁকি দিচ্ছেন। অথচ তিনি দরিদ্রদের কাছ থেকেও কর আদায় করছেন।

ঋষি সুনাক এখন কী করবেন

নির্বাচনে পরাজয়ের কিছুক্ষণ পরই সুনাক জয়ী প্রার্থী লিজ ট্রাসের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। টুইটে সুনাক বলেছেন, এখন আমাদের নতুন প্রধানমন্ত্রী লিজ ট্রাসের পাশে থাকতে হবে। কারণ, কঠিন সময়ে তাকে দেশ পরিচালনা করতে হবে।

সুনাক আরও বলেন, ইয়র্কশায়ারে রিচমন্ড এলাকায় এমপি হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করবেন। তিনি বলেন, রিচমন্ডের জনগণ যতদিন তাকে চাইবেন, ততদিন তাদের পাশে থাকবেন তিনি।

এমকে

Source link