free hit counter
আন্তর্জাতিক

মালয়েশিয়ায় ইতিহাসের বদল, ঝুলন্ত পার্লামেন্ট

ছবি: এএফপি

মালয়েশিয়ায় সাধারণ নির্বাচনে কোনো দলই সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করতে পারেনি। এতে ঝুলে গিয়েছে দেশটির সরকার গঠনের প্রক্রিয়া। নতুন ফেডারেল সরকার গঠন করতে জোট গঠনের আদেশ দিয়েছেন দেশটির রাজা ইয়াং ডি-পার্টুয়ান আগং আল-সুলতান আবদুল্লাহ রিয়াতউদ্দিন আল-মুস্তফা বিল্লাহ শাহ।

মঙ্গলবারের (২২ নভেম্বর) মধ্যে জোটকে প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী দেয়ার নির্দেশও দেয়া হয়েছে।

গত শনিবার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ভোটে ক্ষমতাসীন জোট বারিসান ন্যাশনালের ভরাডুবি আর প্রধান বিরোধীদল আনোয়ার ইব্রাহিমের পাকাতান হারাপান জোট সবচেয়ে বেশি আসনে জিতলেও সরকার গঠনের মতো প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি কোনো দল। এদিকে দুই দশকেরও বেশি সময় মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা মাহাথির মোহাম্মদ ৫৩ বছরে প্রথমবার নিজের পার্লামেন্টারি আসন খুইয়েছেন।

শুধু যে হেরেছেন তা-ই নয়, ৯৭ বছর বয়সি এই রাজনীতিক তার জামানতও হারিয়েছেন। মাহাথিরের এমন হারকে ‘বিস্ময়কর’ বলা হচ্ছে। জানা গেছে, নির্বাচনে নিজের আসনে পাঁচ প্রার্থীর মধ্যে চতুর্থ হন মাহাথির।

এতে তার দলেরও ভরাডুবি হয়েছে। তার দল একটিও আসন পায়নি। এর আগে ১৯৬৯ সালে প্রেসিডেন্ট ইউসুফ রাজার কাছে হেরেছিলেন মাহাথির। দ্বিতীয়বারের এই পরাজয়কে তার সাত দশকের রাজনৈতিক জীবনের ইতি হিসাবে দেখা হচ্ছে।

জামানত ধরে রাখতে ১২ দশমিক ৫ শতাংশ ভোট পেতে হতো মাহাথিরের; অথচ তিনি পেয়েছেন ৬ দশমিক ৮ শতাংশ, সাকুল্যে মাত্র ৪ হাজার ৫৬৬ ভোট।

লংকাউয়ির ওই আসন জিতেছেন আরেক সাবেক প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দিনের পারিকাতান অ্যালায়েন্সের প্রার্থী মোহাম্মদ সুহাইমি আবদুল্লাহ। তিনি পেয়েছেন ২৫ হাজার ৪৬৩ ভোট, দ্বিতীয় হওয়া বারিসান ন্যাশনালের আরমিশাহ সিরাজ পেয়েছেন ১১ হাজার ৯৪৫ ভোট।

২০১৮ সালে এই আসনে মাহাথির পেয়েছিলেন ৩৪ হাজার ৫২৭ ভোট, মোট ভোটের ৫৪ দশমিক ৯ শতাংশ। সেবার তার বিরুদ্ধে বারিসান ন্যাশনালের প্রার্থী পেয়েছিল ২৯ দশমিক ১ শতাংশ ভোট।

এমকে

Source link

Bednet steunen 2023