free hit counter
আন্তর্জাতিক

মহারাষ্ট্রে ক্ষমতা হারাচ্ছেন উদ্ধব ঠাকরে

ভারতের মহারাষ্ট্রে সরকারের পতন এখন কেবল সময়ের অপেক্ষা। বিজেপির কৌশলে রাজ্যে ক্ষমতাসীন দল শিবসেনায় দেখা দিয়েছে ভাঙন। দলটির বিদ্রোহী নেতা একনাথ সিন্ধেসহ মোট ৩৪ জন বিধায়ক বর্তমানে বিজেপি শাসিত আসামের গুয়াহাটিতে বিলাসবহুল একটি হোটেলে অবস্থান করছেন। অনেকে বলছেন, দলত্যাগী একনাথ সিন্ধেই হতে পারেন রাজ্যের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী।

শিবসেনার বিদ্রোহী নেতা একনাথ সিন্ধের দাবি, তাঁর সঙ্গে ৪৭ জন বিধায়ক রয়েছেন। এরই মধ্যে গুয়াহাটি থেকে তাঁকে সমর্থন করা বিধায়কদের তালিকা সংবলিত একটি চিঠি রাজভবনে পাঠিয়ে দিয়েছেন। ফলে শিবসেনা, কংগ্রেস ও এনসিপির জোট সরকারের পতন অনিবার্য।

আজকের পত্রিকা অনলাইনের সর্বশেষ খবর পেতে Google News ফিডটি অনুসরণ করুন
এদিকে, মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধভ ঠাকরে বলেছেন, ‘আমার নিজের লোকজন যদি আমাকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে না চায়, তবে তাদের আমার সঙ্গে কথা বলা উচিত। আমি পদত্যাগে প্রস্তুত। আমি বালসাহেবের ছেলে, আমি পদের জন্য লালায়িত নই।’

এদিকে, মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধভ নিজে ও রাজ্যপাল ভগত সিং কোশিয়ারি কোভিড আক্রান্ত। এমতাবস্থায় মুখ্যমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্স করে বিধায়কদের সঙ্গে দলীয় বৈঠক করেন। তবে বৈঠককে অবৈধ বলে একনাথ সিন্ধে দাবি করেছেন তারাই আসল শিবসেনা।

কংগ্রেস নেতা কমলনাথের অভিযোগ, বিজেপি বিধায়ক কেনাবেচার মাধ্যমে অস্থিরতা সৃষ্টি করছে। কংগ্রেস উদ্ধভকেই সমর্থন করবে। এনসিপি নেতা শারদ পাওয়ারও একই কথা বলেছেন। তবে বিরোধী দলনেতা বিজেপির দেবেন্দ্র ফড়নবিশের দাবি বর্তমান সরকারের এক মুহূর্ত ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার নেই।