free hit counter
আন্তর্জাতিক

বিশ্ববাজারে আরও কমল খাদ্যপণ্য ও ভোজ্যতেলের দাম

গম। ফাইল ফটো

রাশিয়া ইউক্রেন যুদ্ধ ও করোনার প্রভাবে বিশ্বজুড়ে যখন খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা বাড়ছে, তখনই স্বস্তির খবর দিল জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও)। সংস্থাটি বলছে, ১০ মাসের মধ্যে সর্বনিম্নে নেমেছে ভোজ্যতেলের দাম। আর টানা চতুর্থ মাসের মতো কমেছে খাদ্যপণ্যের দামও।

শুক্রবার (৫ আগস্ট) এফএওর দেয়া তথ্যের বরাতে চীনা বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানায়, গেল জুনের তুলনায় জুলাইয়ে খাদ্যপণ্যের দাম গড়ে কমেছে ৮ দশমিক ৬ শতাংশ। অন্যদিকে গেল এক মাসে বিশ্ববাজারে ভোজ্যতেলের মূল্য কমেছে ২০ শতাংশের কাছাকাছি, যা গত ১০ মাসের মধ্যে সর্বনিম্নে।

একক পণ্য হিসেবে বিশ্বব্যাপী গত মাসে গমের দাম কমেছে সাড়ে ১৪ শতাংশ। ভুট্টার দামও কমেছে প্রায় ১১ শতাংশ। সব মিলিয়ে জুলাইয়ে খাদ্যশস্যের দাম কমেছে সাড়ে ১১ শতাংশ। যদিও এখনও তা এক বছর আগের তুলনায় ১৬ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি।

এছাড়া চিনির দাম কমেছে ৩ দশমিক ৮ শতাংশ। এনিয়ে টানা তৃতীয় মাসের মতো কমল পণ্যটির দাম। সম্প্রতি রাশিয়া-ইউক্রনের মধ্যে পণ্য পরিবহন সংক্রান্ত চুক্তির ইতিবাচক প্রভাব দ্রুত বিশ্ববাজারে পড়েছে বলে জানিয়েছে এফএও।

জাতিসংঘের এ সংস্থাটি ভোজ্যতেল ও খাদ্যপণ্যের দাম কমার হিসাব দিলেও এর তেমন কোনো প্রভাব পড়ছে না দেশের বাজারে। বিক্রেতারা বলছেন, কমানোর বদলে বরং আটা, ময়দা, ভোজ্যতেল, ডাল, চিনিসহ আমদানিনির্ভর পণ্যের দাম বাড়ার ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে।

তবে আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমার প্রভাব যেন দ্রুত দেশের বাজারে পড়ে তা নিশ্চিত করার তাগিদ অর্থনীতিবিদদের।

এসআর

Source link