free hit counter
আন্তর্জাতিক

বিশ্বকাপে হামলার হুমকি আইএসের

ছবি: সংগৃহীত

৩২ দেশের অংশগ্রহণে আগামী ২০ নভেম্বর মরুর বুকে পর্দা উঠবে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ ফুটবল বিশ্বকাপের। প্রিয় দলকে সমর্থন জানাতে এরই মধ্যে বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে জড়ো হচ্ছেন সমর্থকরা। মধ্যপ্রাচ্যের ছোট দেশটি বিশ্বকাপ উপলক্ষে মানুষে কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে উঠবে। ফলে এ সময়টাকে হামলার জন্য সেরা সুযোগ বলে মনে করছেন জঙ্গি সংগঠন আইএসের কিছু অনুসারী। বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ে দেশটিতে আইএস হামলা করতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্প্যানিশ পত্রিকা লা রাহনের খবর বলছে, টেলিগ্রামের মাধ্যমে এই ব্যাপারে যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছে আইএসপন্থিরা। জানা গেছে, এই অ্যাপসে যোগাযোগ রাখছে তারা, যেন বিশ্বকাপ চলাকালীন হামলা করতে পারে। এই ব্যাপারে পরিকল্পনাও রয়েছে তাদের। যদিও তাদের দেয়া বার্তাগুলো অনেকটাই এনক্রিপটেড। যেমন ‘পরিষ্কার অভিযান চলছে। কাতার বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করে গোল কর। সবার জন্য গোল করা উন্মুক্ত।’

সন্ত্রাসীদের লক্ষ্যের মধ্যে অন্যতম ফ্রান্স, বেলজিয়াম ও কানাডা। এই তিন দেশকে তারা বড় লক্ষ্য হিসেবে ধরে নিয়েছে। দেশগুলোর ফুটবলারই নয়, বরং সমর্থকদেরও টার্গেটে রেখেছে আইএস।

এদিকে, বিশ্বকাপ উপলক্ষে নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে কাতার। ২০ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়া এই প্রতিযোগিতায় ১২ লাখের বেশি ভক্ত কাতারে আসবেন ফুটবল মঞ্চ উপভোগ করতে। দর্শনার্থীদের শতভাগ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আয়োজক দেশটি বেশ কয়েকটি দেশের সঙ্গে নিরাপত্তা সহযোগিতা চুক্তিও করেছে ইতোমধ্যে। ১৩টি দেশের অংশীদারদের সঙ্গে কাতারের নিরাপত্তা বাহিনী সারাদেশে এরই মধ্যে পাঁচ দিনের নিরাপত্তা মহড়া চালিয়েছে।

এক বিবৃতিতে কাতারের স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, জরুরি পরিষেবাগুলোর প্রস্তুতি এবং প্রতিক্রিয়াশীলতা পরীক্ষা করার লক্ষ্যে ওই মহড়া চালানো হয়েছিল। অপরদিকে বিশ্বকাপের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে তুরস্ক আগেই ঘোষণা করেছে তারা স্টেডিয়াম এবং হোটেলগুলোকে সুরক্ষিত করতে তিন হাজারও বেশি দাঙ্গা পুলিশ অফিসার পাঠাবে। সেই সঙ্গে ১০০ বিশেষ অপারেশন পুলিশ অফিসার, ৫০ জন বোমা বিশেষজ্ঞ এবং ৮০টি স্নিফার কুকুর দেবে কাতার বিশ্বকাপে। এছাড়াও ফরাসি পার্লামেন্ট টুর্নামেন্টের জন্য উপসাগরীয় রাজ্যে প্রায় ২২০ নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন করবে।

যারা ফরাসি নাগরিকসহ ভক্তদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে বলে জানিয়েছে ফরাসি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এদিকে কাতার মরক্কোর সঙ্গে একটি নিরাপত্তা সহযোগিতা চুক্তিও করেছে। গণমাধ্যমে এই খবর জানিয়ে দেশটি বলেছে, টুর্নামেন্ট চলাকালীন কাতারে সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের মোতায়েন করবে তারা।

এমকেএইচ

Source link

Bednet steunen 2023