free hit counter
আন্তর্জাতিক

বায়ুমণ্ডলে কার্বন দূষণ মানবেতিহাসে সর্বোচ্চ, ৫০ শতাংশ বেশি

ফাইল ছবি

মার্কিন প্রধান জলবায়ু সংস্থা শুক্রবার বলেছে, গত মে মাসে বায়ুমণ্ডলে কার্বন ডাই অক্সাইডের ঘনত্ব প্রাক-শিল্প যুগের তুলনায় ৫০ শতাংশ বেশী ছিল। যা পৃথিবীতে গত ৪০ লাখ বছরের মধ্যে দেখা যায়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ওশানিক অ্যান্ড অ্যাটমোসফিরিক অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এনওএএ) বলেছে, মানুষের দ্বারা সৃষ্ট বৈশ্বিক উষ্ণায়ন, বিশেষ করে জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদন, পরিবহন, সিমেন্ট উৎপাদন অথবা বনভূমি উজাড় হওয়ার কারণে কার্বন ডাই অক্সাইডের ঘনত্ব এই নতুন উচ্চতায় পৌঁছেছে। সাধারণত প্রতি বছর মে মাসে কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা সর্বোচ্চ বৃদ্ধি পায়।

২০২২ সালের মে মাসে বায়ুমণ্ডলে এক ইউনিট পরিমাপে বায়ুদূষণের পরিমাণ ৪২০ পার্টস পার মিলিয়ন (পিপিএম) বা মিলিগ্রাম পার লিটার (এমজি/এল) ছাড়িয়ে গেছে। ২০২১ সালের মে মাসে এই হার ছিল ৪১৯ পিপিএম এবং ২০২০ সালে ছিল ৪১৭ পিপিএম। হাওয়াইয়ের মাওনা লোয়া মানমন্দির বায়ুমণ্ডলের এই দূষণের পরিমাপ করেছে। এই মানমন্দির একটি আগ্নেয়গিরি পর্বত চূড়ায় অবস্থিত, যা স্থানীয় দূষণের প্রভাব থেকে প্রকৃত দূষণ মাত্রা আলাদা করতে পারে।

এনওএএ জানায়, বিপ্লবের আগে কার্বন ডাই অক্সাইডের মাত্রা প্রায় ২৮০ পিপিএম-এ স্থির ছিল, যা মানব সভ্যতার প্রায় প্রায় ৬ হাজার বছর বা প্রাক-শিল্পযুগ পর্যন্ত স্থির ছিল। বর্তমান স্তর ৪১ থেকে ৪৫ লাখ বছর আগের পরিস্থিতির সঙ্গে তুলনা করা যায়। তখন কার্বন ডাই অক্সাইডের এই মাত্রা ৪০০ পিপিএম-এর কাছাকাছি বা ছাড়িয়ে গিয়েছিল।

এসএইচ

Source link