free hit counter
আন্তর্জাতিক

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়োগে ‘অসঙ্গতি’, মালয়েশিয়ায় মন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়োগ প্রক্রিয়ায় ক্ষমতার অপব্যবহার ও দুর্নীতি লুকানোর চেষ্টা সন্দেহে মালয়েশিয়ার পেরাক রাজ্যের তাপাহ এমপি ও দেশটির মানবসম্পদমন্ত্রী এম সারাভাননের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বেসরকারি সংস্থা (এনজিও), ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা জোট (ইখলাস)।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার (২১ জুন) বিকেলে রাজধানী কুয়ালালামপুরের দাংওয়াঙ্গি জেলা সদর দফতরে এ মামলা করা হয়। মামলাটি দায়ের করেন ইখলাসের সভাপতি মোহাম্মদ রিজোয়ান আবদুল্লাহ।

এ সময় বিষয়টি তিনি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, মালয়েশিয়ার দুর্নীতি দমন কমিশন (এমএসিসি) এবং প্রধানমন্ত্রী দাতুক সেরি ইসমাইল সাবরি ইয়াকোবকে বিষয়টি দেখার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, গত ১৭ জুন স্থানীয় গণমাধ্যমের এক প্রতিবেদন দেখে তার সন্দেহের সৃষ্টি হয়। এতে বাংলাদেশের প্রবাসী কল্যাণ ও বিদেশি কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদের উদ্ধৃতি দেয়া হয়। যেখানে ২৫টি এজেন্সির ব্যাপারে বাংলাদেশের মতামত নিয়ে সারাভানন দাবি করেন, সিন্ডিকেটের মাধ্যমে জনশক্তি পাঠাতে সম্মতি দিয়েছে বাংলাদেশ সরকার। এরপরই বাংলাদেশের তরফ থেকে স্পষ্ট জানানো হয়, সিন্ডিকেট প্রশ্নে মালয়েশিয়ার মন্ত্রীর অভিযোগ সঠিক নয়। এমনকি স্বাক্ষরিত চুক্তিতেও এ ধরনের কোনো শর্ত যুক্ত নেই।

মোহাম্মদ রেজোয়ান আরও বলেন, আমরা মনে করি এটি জাতীয় নিরাপত্তা এবং ক্ষমতার অপব্যবহার। সারাভানান সকাল-সন্ধ্যায় তার মত পরিবর্তন করছেন। এ বিষয়ে সঠিক তদন্তের জন্য পুলিশে রিপোর্ট করা হয়েছে। বেসরকারি সংস্থা ইখলাসের সাথে জোটবদ্ধ অন্যান্য বেসরকারি সংস্থা (এনজিও) এখন পর্যন্ত তিনটি থানায় রিপোর্ট করেছে। প্রয়োজনে আরও রিপোর্ট করা হবে বলেও জানিয়েছে।

এদিকে, সম্প্রতি সাবাহ রাজ্যে এক অভিবাসন বিষয়ক সভায় দেশটিতে অবস্থানরত অনথিভুক্ত অভিবাসীদের নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করায় দেশটির মানবসম্পদমন্ত্রী এম সারাভানানের পদত্যাগের জোর দাবির পক্ষে সমর্থন জানিয়েছেন সাবাহ প্রদেশের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী হারিস সালেহ।

২০২১ সালের ১৯ জুন বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার মধ্যে জনশক্তি রফতানি নিয়ে চুক্তি স্বাক্ষর হলেও এখনও পর্যন্ত কোনো কর্মী আসা শুরু হয়নি। আর এ নিয়ে নিজ দল ও বিরোধীদের দারুণ সমালোচনার মুখে পড়েছেন মানবসম্পদমন্ত্রী এম সারাভানান। এ অবস্থায় আবারও স্থবির হওয়ার শঙ্কায় দুই দেশের মধ্যকার স্বাক্ষরিত শ্রম চুক্তি।